ইন্টেরিয়র ডিজাইনে সম্ভাবনাময় ভবিষ্যত্
০৪ জুন, ২০১৮ ইং
ইন্টেরিয়র ডিজাইনে সম্ভাবনাময় ভবিষ্যত্
মানুষ একদিকে যেমন চায় নিজেকে সুন্দর দেখতে, অন্যদিকে চায় তার আবাসস্থল এবং ভিতরের সাজসজ্জা, অফিস-আদালত, হাসপাতাল, বিদ্যালয় থেকে শুরু করে সব কিছুর সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে। আর এ কাজটাই করতে হয় একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনারকে। আপনি যে ঘরে বসবাস করছেন সে ঘরের দেয়াল, মেঝে, দরজা, জানালা, আসবাব এমনকি পর্দাটাই বা কেমন হবে সে হিসাবটা করবেন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার। এক কথায় বলা চলে, ঘরের দেয়ালের রং, মানানসই আসবাবপত্রের ডিজাইন ও রং থেকে শুরু করে স্বল্প পরিসরের জায়গাকে কীভাবে বেশি করে ব্যবহার করা যায়, সে বিষয়ে যাবতীয় ডিজাইন ও বাস্তবায়ন করাটাই ইন্টেরিয়র ডিজাইনারের কাজ। বর্তমানে আমাদের দেশের তরুণরা এ ক্ষেত্রটিতে নিজেদের যুক্ত করে গড়ে তুলছে অন্যতম একটি সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার। সময়ের চাহিদার বিষয় লক্ষ্য রেখে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি (এনআইইটি) নিত্যনতুন বিষয় কোর্স কারিকুলামে অন্তর্ভুক্ত করছে। এরই ধারাবাহিকতায় চালু হওয়া তেমনি একটি বিষয় হলো, আর্কিটেকচার অ্যান্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং। রাজধানীর ৬৯/ই গ্রিন রোডে অবস্থিত এনআইইটিতে আরও যেসব কোর্স পরিচালিত হয়, সেগুলো হলো ডিপ্লোমা ইন মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং, শিপ বিল্ডিং টেকনোলজি, টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ারিং, গার্মেন্ট ডিজাইন অ্যান্ড প্যাটার্ন মেকিং, গ্লাস টেকনোলজি, সার্ভেয়িং, সিরামিকস টেকনোলজি, আর্কিটেকচার অ্যান্ড ইন্টেরিয়র ডিজাইনিং, ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং প্রভৃতি। এখানে রয়েছে অভিজ্ঞ শিক্ষকমণ্ডলী, সুসজ্জিত বিষয়ভিত্তিক ল্যাব, ইন্ডাস্ট্রিয়াল ট্যুর, সমৃদ্ধ লাইব্রেরি, ওয়াই-ফাই ক্যাম্পাস, জব প্লেসমেন্ট, হোস্টেল সুবিধা প্রভৃতি। এছাড়া স্কলারশিপসহ স্বল্প খরচে এনআইইটির নিজস্ব বিশ্ববিদ্যালয় উচ্চশিক্ষার সুযোগ রয়েছে। আরও জানতে যোগাযোগ করতে পারেন ০১৮৪১১৬১১৬১ নম্বরে। সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে মানুষের কাজের ক্ষেত্রও বাড়ছে। নিত্যনতুন এসব কর্মক্ষেত্রে নিজেদের যুক্ত করে অনেকেই সফলভাবে তাদের ক্যারিয়ার গড়ে তুলছেন। আমাদের দেশে তেমনি একটি কর্মক্ষেত্র হলো ইন্টেরিয়র ডিজাইন। আগে আমাদের দেশে স্থপতিরাই সাধারণত কোনো ভবন নির্মাণের পাশাপাশি এর ইন্টেরিয়র ডিজাইন করতেন। কিন্তু বর্তমানে আর্কিটেকচার ও ইন্টেরিয়র ডিজাইন পৃথকভাবে করা হচ্ছে। বিভিন্ন আর্কিটেকচারাল কোম্পানি, রিয়েল এস্টেট কোম্পানি, ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট ফার্ম, ইন্টেরিয়র ডিজাইন ফার্ম, পেইন্ট কোম্পানিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইন্টেরিয়র ডিজাইনারদের প্রচুর চাহিদা রয়েছে।

 

 

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৪ জুন, ২০১৯ ইং
ফজর৩:৪৪
যোহর১১:৫৭
আসর৪:৩৭
মাগরিব৬:৪৬
এশা৮:০৯
সূর্যোদয় - ৫:১০সূর্যাস্ত - ০৬:৪১
পড়ুন