ঢাকা কমার্স কলেজ বাণিজ্য
শিক্ষায় অনন্য বিদ্যাপীঠ
১২ নভেম্বর, ২০১৮ ইং
শিক্ষায় অনন্য বিদ্যাপীঠ
>> এস এম আলী আজম

 

বাণিজ্য বিষয়ক তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক জ্ঞানের সমন্বয়ে বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীকে পেশাগত জীবনে সফল হিসেবে গড়ে তোলার ক্ষেত্রে ঢাকা কমার্স কলেজ দেশের শীর্ষস্থানীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এদেশে বাণিজ্য শিক্ষার মানসম্মত প্রতিষ্ঠানের শূন্যতা পূরণে ১৯৮৯ সালে স্ব-অর্থায়নে প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালিত এ কলেজের যাত্রা শুরু হয়। ঢাকা বোর্ড ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যলয়ের অধীনে বিভিন্ন পরীক্ষায় এই কলেজের শিক্ষার্থীরা প্রতিবছর প্রায় শতভাগ পাস ও মেধাতালিকায় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক স্থান দখল করে আসছে। পাশাপাশি অনার্স ও মাস্টার্স-এ প্রায় সবাই উত্তীর্ণ হচ্ছে ১ম শ্রেণি নিয়ে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ র্যাংকিং ২০১৫ ও ২০১৬-এ ৬৮৫টি কলেজের মধ্যে ঢাকা কমার্স কলেজ দু বছরই তিন ক্যাটাগরিতে সেরা কলেজ নির্বাচিত হয়ে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথমবারের মতো প্রকাশিত কলেজ র্যাংকিং ২০১৫-এর মতো সদ্য প্রকাশিত ২০১৬ সালের র্যাংকিংয়েও দেশের সেরা বেসরকারি কলেজ নির্বাচিত হয়েছে ঢাকা কমার্স কলেজ। সারাদেশে বেসরকারি কলেজসমূহের মধ্যে একমাত্র ঢাকা কমার্স কলেজ পরপর দু’বার সর্বোচ্চ তিন ক্যাটাগরিতে সেরা কলেজের স্বীকৃতি পেয়েছে। কলেজটি ১৯৯৬ এবং ২০০২ সালে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি অর্জন করেছে। বাণিজ্য বিষয়ক তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক শিক্ষার সমন্বয়ে শিক্ষার্থীদের সুশিক্ষিত ও স্বশিক্ষিত করে গড়ে তোলার উদ্দেশে ১৯৮৯ সালে গঠিত হয় ব্যবসায় শিক্ষার বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান ঢাকা কমার্স কলেজ। কলেজটি সম্পূর্ণ স্ব-অর্থায়নে পরিচালিত ও রাজনীতি ও ধূমপানমুক্ত। ঢাকা কমার্স কলেজ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ পারফর্মেন্স র্যাংকিং ২০১৬-এ জাতীয় পর্যায়ে সেরা বেসরকারি কলেজ, ঢাকা-ময়মনসিংহ অঞ্চলের ১০টি সেরা কলেজের মধ্যে ১ম স্থান এবং জাতীয় পর্যায়ে ৭টি সেরা কলেজের মধ্যে ষষ্ঠ স্থান অর্জন করেছে।

বাণিজ্য শিক্ষার বিদ্যাপীঠে বর্তমান ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা প্রায় ৭ হাজার জন, শিক্ষক সংখ্যা ১৩৭, কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সংখ্যা ১১৫। এ কলেজে উচ্চমাধ্যমিক শ্রেণির ব্যবসায় শিক্ষা ছাড়াও ব্যবস্থাপনা, হিসাববিজ্ঞান, মার্কেটিং, ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং, ইংরেজি, অর্থনীতি ও বাংলা বিষয়ে অনার্স ও ৬টি বিষয়ে মাস্টার্স কোর্স রয়েছে। এছাড়া রয়েছে বিবিএ প্রফেশনাল ও সিএসই কোর্স। বাস্তব ও প্রয়োজনভিত্তিক পাঠদান এবং নিয়মিত ও বাধ্যতামূলক অভ্যন্তরীণ পরীক্ষায় অংশগ্রহণের কারণে বোর্ড ও বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় অবিরাম সাফল্য ধরে রাখা সম্ভব হয়েছে এ প্রতিষ্ঠানটির।

শিক্ষাসম্পূরক কার্যক্রমেও ঢাকা কমার্স কলেজের শিক্ষার্থীরা অগ্রগামী। প্রতিবছরই অনুষ্ঠিত হচ্ছে সাহিত্য-সাংস্কৃৃতিক ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতা, বনভোজন, নৌবিহার, শিক্ষাসফর, অফিস ও কারখানা পরিদর্শন, জাতীয় দিবস উদযাপন, বার্ষিক ভোজ, মিলাদ ইত্যাদি। জাতীয় পর্যায়ে বিভিন্ন ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় এই কলেজের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করে প্রায় প্রতি বছরই পদক লাভ করছে। শিক্ষার্থীর সুপ্ত প্রতিভা পরস্ফুিটন ও নেতৃত্ব বিকাশে রয়েছে বির্তক, রোটার্যাক্ট, আর্টস অ্যান্ড ফটোগ্রাফি, সাধারণজ্ঞান, আবৃত্তি, নাটক, নৃত্য, সংগীত, বিজনেস, রিডার্স অ্যান্ড রাইটার্স, নেচার স্টাডি ও ল্যাংগুয়েজ ক্লাব। রয়েছে বিএনসিসি নৌ উইংয়ের প্রশিক্ষিত দল। আকাশ ছোঁয়া স্বপ্ন নিয়ে শিক্ষার প্রজ্জ্বলিত মশাল হাতে প্রতিষ্ঠানটি শির উঁচু করে দাঁড়িয়ে আছে রাজধানীর মিরপুরে। প্রতিষ্ঠানটির কলেজ গভর্নিং বডির চেয়ারম্যান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. সফিক আহমেদ সিদ্দিক, অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আবু সাইদ ও উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো. শফিকুল ইসলাম। এর শিক্ষকগণ ব্যবসায় শিক্ষায় দেশের প্রথিত যশা সেরা শিক্ষক।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১২ নভেম্বর, ২০১৯ ইং
ফজর৪:৫৩
যোহর১১:৪৩
আসর৩:৩৯
মাগরিব৫:১৭
এশা৬:৩২
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৫:১২
পড়ুন