শেষ হলো অদ্বৈত মেলা
০৭ জানুয়ারী, ২০১৬ ইং
শেষ হলো অদ্বৈত মেলা
মোহাম্মদআরজু

ব্রাহ্মণবাড়িয়া  প্রতিনিধি

 

অদ্বৈত সম্মাননা প্রদান, পুরস্কার বিতরণ, আবৃত্তি ও লোকগানের আসরের মধ্য দিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অনুষ্ঠিত তিন দিনব্যাপী অদ্বৈত মেলা শেষ হয়েছে। এ বছর অদ্বৈত সম্মাননা ২০১৬ প্রদান করা হয়েছে তিতাস পাড়ের কৃতি সন্তান, ত্রিপুরার গণমানুষের কবি ও অদ্বৈত গবেষক দিলীপ দাসকে। শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত ভাষা চত্ত্বরের তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের আয়োজনে মেলা মঞ্চে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে এ সম্মাননা প্রদান করা হয়। এ সময় কবি দিলীপ দাসকে সম্মাননা স্মারক, উত্তরীয়, ফুল ও স্মারক উপহার প্রদান করা হয়। দেশের প্রখ্যাত সাহিত্যিক ও অদ্বৈত সম্মাননা ২০১৩ প্রাপ্ত অধ্যাপক শান্তনু কায়সারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক ড. মুহাম্মদ মোশাররফ হোসেন। তিতাস আবৃত্তি সংগঠনের সদস্য শফিকুর রহমানের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এএসএম শফিকুল্লাহ, সহকারি পুলিশ সুপার তাপস রঞ্জন ঘোষ, সাহিত্য একাডেমির আহ্বায়ক ও অদ্বৈত সম্মাননা ২০১৫ প্রাপ্ত কবি জয়দুল হোসেন, রাবেয়া খাতুন স্মৃতি পাঠাগারের সভাপতি এ্যাডভোকেট আকছির এম চৌধুরী ও শিক্ষাবিদ সোপানুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন সংগঠনের পরিচালক মো. মনির হোসেন। কবি দিলীপ দাসের কবিতা থেকে আবৃত্তি করেন দেশবরেণ্য আবৃত্তিশিল্পী কাজি মাহতাব সুমন, রাশেদ হাসান ও ত্রিপুরার বিশিষ্ট আবৃত্তিশিল্পী স্মীতা ভট্টাচার্য। সম্মাননা প্রদানের পর সংগঠনের উপদেষ্টা জহিরুল ইসলাম ভূঞার সভাপতিত্বে পুরস্কার বিতরণ করেন এ পর্বের প্রধান অতিথি জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল আলীম। অদ্বৈত মেলায় প্রতিদিনের অনুষ্ঠানমালায় ছিল ছবি আঁকা, আবৃত্তি, রচনা লিখন, লোকগান-লোক নাচের প্রতিযোগিতা, কবিতা পাঠ-আবৃত্তি অনুষ্ঠান, আলোচনা ও লোকগান-লোক নাচের আসর। অদ্বৈত মেলা মূলত লোক সংস্কৃতির মেলায় পরিণত হয়। এ সকল পর্বে সংস্কৃতি প্রিয় মানুষের ঢল নামে। বিভিন্ন পর্বে আবৃত্তি করেন কাজী মাহতাব সুমন, রাশেদ হাসান, স্মীতা ভট্টাচার্য, জামিল ফুরকান, নাবিল হাসান অনিমেষ, হাবিবুর রহমান পারভেজ ও সাইফুল ইসলাম। কবি কণ্ঠে কবিতা পাঠ করেন কবি ইরাজ আহমেদ, মোহাম্মদ আশরাফ, পিয়াস মজিদ, জয়দুল হোসেন, মুনিরুল মুনির, তালুকদার কাসেম, ইব্রাহিম খান সাদাত, শৌমিক ছাত্তার, রুদ্র মোহাম্মদ ইদ্রিস, লুত্ফুর রহমান, নাজমা বেগম, মুছা মিয়া, মানিক রতন শর্মা ও জহিরুল ইসলাম চৌধুরী স্বপন। লোক নাচে অংশ নেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জহিরুল ইসলাম খান, পাপিয়া চৌধুরী, রুনাক সুলতানা পারভীন, হূদয় কামাল, ফারুক আহমেদ, পারুল, আসিফ ইকবাল খান, নবনীতা রায় বর্মণ, নুশীন আদিবা, জুমানা কামাল, ভজনা রানী দাস, সোহাগ রায় প্রমুখ

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৭ জানুয়ারী, ২০২১ ইং
ফজর৫:২১
যোহর১২:০৫
আসর৩:৫১
মাগরিব৫:৩০
এশা৬:৪৭
সূর্যোদয় - ৬:৪২সূর্যাস্ত - ০৫:২৫
পড়ুন