লোলিত মোদী বিতর্কে সুষমা স্বরাজের পাশে বিজেপি
ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের (আইপিএল) স্পট ফিক্সিং কাণ্ডে জড়িত লোলিত মোদীকে ভিসা দেয়া নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের বিরুদ্ধে বিরোধীদের তীব্র সমালোচনা সত্ত্বেও তার দল বিজেপি’র কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সমর্থন জানিয়েছেন। নেতৃবৃন্দ মনে করছেন সুষমা স্বরাজ এক্ষেত্রে কোনো ভুল করেননি। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গেও কথা বলেছেন।

সুষমা স্বরাজের বিরুদ্ধে অভিযোগ, এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি) কালো তালিকাভুক্ত সাবেক আইপিএল টুর্নামেন্টের চেয়ারম্যান লোলিত মোদীকে ব্রিটিশ ভিসা দিতে নিজের প্রভাব খাটিয়েছেন তিনি। ললিত মোদীকে দেশ ছাড়তে প্রয়োজনীয় নথিপত্র তৈরিতে সাহায্য করা ছাড়াও সুষমা ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি কিথ ভাজের উপর চাপ সৃষ্টি করেন বলেও ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। নথির বিষয়টি স্বীকার করলেও পররাষ্ট্র মন্ত্রীর দাবি , স্ত্রীর অসুস্থতার জন্যই ললিত মোদীর দেশ ছাড়া জরুরি হয়ে পড়েছিল। ললিত মোদী তাকে জানিয়েছিলেন, ক্যান্সার আক্রান্ত স্ত্রীর অস্ত্রোপচারের জন্যই তার পর্তুগালে যাওয়া জরুরি হয়ে পড়েছিল। ফলে মানবিক কারণেই লোলিত মোদীর ভিসা সংক্রান্ত বিষয়ে এগিয়েছিলেন তিনি। ২০১০ সালে আইপিএলে স্পট ফিক্সিংয়ে নাম ছিল টুর্নামেন্টের তত্কালীন চেয়ারম্যান লোলিত মোদীর। আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে লুকআউট নোটিশও জারি করে ইডি। কিন্তু সেসময় দেশ ছেড়ে ব্রিটেনে চলে যান তিনি। ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যমের অভিযোগ, সুষমার সুপারিশেই কিথ ভাজ সে দেশের অভিবাসন দপ্তরের উপর চাপ সৃষ্টি করেন। এরপর লোলিত মোদীর ভিসা মঞ্জুর হয়। সুষমা বলেন, নিয়ম-নীতি মেনেই ব্রিটিশ হাইকমিশনারকে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছিল। এ ঘটনায় বিরোধী রাজনীতিকরা পররাষ্ট্র মন্ত্রীর ব্যাপক সমালোচনা করছেন। তারা সুষমা স্বরাজের পদত্যাগও দাবি করেছেন। তবে সুষমাকে সমর্থন করে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বলেন, নিয়মের মধ্যেই লোলিত মোদীকে সাহায্য করেছিলেন সুষমা। আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কোনো কাজে ভুল হয়নি। সরকার তার পাশে আছে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৫ জুন, ২০২১ ইং
ফজর৩:৪৩
যোহর১১:৫৯
আসর৪:৩৯
মাগরিব৬:৪৯
এশা৮:১৪
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৪
পড়ুন