আর কোন শিল্প কারখানা বেসরকারি করা হবে না :প্রধানমন্ত্রী
বাসস২৭ আগষ্ট, ২০১৫ ইং
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারি খাতের বন্ধ শিল্পের জমির যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব আরোপ করে বলেছেন, দেশে আর কোন সরকারি শিল্পকারখানা বেসরকারি করা হবে না।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে গতকাল দুপুরে তাঁর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জাতীয় শিল্প উন্নয়ন কাউন্সিলের (এনআইসিডি) দ্বিতীয় সভায় তিনি এ কথা বলেন।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে বলেন, বৈঠকে শিল্পায়ন ও বিনিয়োগের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।

তিনি বলেন, বৈঠকে জানানো হয়, দেশে শিল্পায়ন ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির জন্য বিনিয়োগ বোর্ড (বিওআই) প্রাইভেটাইজেশন কমিশন একীভূত করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বন্ধ সরকারি শিল্প কলকারখানার অব্যবহূত জমি নামমাত্র মূল্যে বিক্রয় করার কথা উল্লেখ করে বলেন, এই জমি ভবিষ্যতে শিল্প পার্ক স্থাপনের জন্য ব্যবহার করা হবে।

তিনি বলেন, এ মুহূর্তে একটি আধুনিক শিল্প স্থাপনের জন্য বেশি জমির প্রয়োজন নেই। স্বল্প জমিতে এই শিল্প স্থাপন করা যেতে পারে।

শেখ হাসিনা পাটকে দেশের পরিবেশবান্ধব কৃষি সম্পদ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, সরকার বাংলাদেশে পাটের সুতা উত্পাদনে চীনকে প্রস্তাব দিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বর্তমান ক্ষুদ্র শিল্প ঋণের পরিমাণ ৫ লাখ টাকার সিলিং বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

বৈঠকে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, পাটমন্ত্রী ইমাজউদ্দিন প্রামাণিক, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. মশিউর রহমান, বিদ্যুত্, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ, বিনিয়োগ বোর্ডের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. এস এ সামাদ, মন্ত্রিপরিষদ সচিব এম মোশাররফ হোসাইন ভুঁইয়া, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. আবুল কালাম আজাদ এবং প্রেস সেক্রেটারি ইহসানুল করিম ও সংশ্লিষ্ট সচিবগণ উপস্থিত ছিলেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৭ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪০
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন