ভাগ-বাটোয়ারা বাদ দিয়ে ঐক্যবদ্ধ থাকুন :আশরাফ
ইত্তেফাক রিপোর্ট২৭ আগষ্ট, ২০১৫ ইং
দলের নেতাকর্মীদের দৃঢ় ঐক্য গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, আমরা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আছি ঠিকই, কিন্তু ক্ষমতায় থেকেও আমরা নিরাপদ নই। এ জন্য আমাদের সব সময় পাহারা দিয়ে রাখতে হবে। তিনি বলেন, সবাই ঐক্যবদ্ধ হোন। ক্ষমতায় আছেন বলেই সামান্য দু-চার পয়সার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে কোন্দলে জড়াবেন না। ব্যক্তিস্বার্থকে গুরুত্ব না দিয়ে দলের স্বার্থে, জাতির স্বার্থে কাজ করুন। আমাদের সব সময় সতর্ক এবং প্রস্তুত থাকতে হবে। দলের স্বার্থে, দেশের স্বার্থে, শেখ হাসিনার স্বার্থে ভাগ-বাটোয়ারা বাদ দিয়ে ঐক্যবদ্ধ থাকুন। আমরা যদি নিজেদের মধ্যে কোন্দল করি তবে দুর্বল হয়ে যাব।

গতকাল বুধবার রাজধানীর গুলিস্তানে মহানগর নাট্যমঞ্চে জাতীয় শ্রমিক লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

বিএনপিকে ষড়যন্ত্রকারী ও খুনিদের দল হিসাবে আখ্যায়িত করে সৈয়দ আশরাফ বলেন, প্রতিদিনই বিভিন্ন কৌশলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর হামলা করার ষড়যন্ত্র হচ্ছে। এর আগে বার বার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করার চেষ্টা হয়েছে। এখন পর্যন্ত তিনি রেহাই পেলেও ষড়যন্ত্র কিন্তু থেমে নেই। বিএনপি-জামায়াত সব সময়ই পরিকল্পনা করে শেখ হাসিনাসহ আওয়ামী লীগ নেতাদের হত্যা করার। তাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সকলে ঐক্যবদ্ধ না থাকলে ভয়ঙ্কর কিছু ঘটে যেতে পারে।

দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মন্ত্রী আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার জন্য ১৪ আগস্ট দিবাগত রাত বেছে নেয়া হয়েছিল, কারণ ওইদিন পাকিস্তানের জন্ম। বঙ্গবন্ধুর অপরাধ ছিল তিনি ষড়যন্ত্রকারীদের সাধের পাকিস্তান ভেঙে স্বাধীন বাংলাদেশের জন্ম দিয়েছিলেন। এমন ষড়যন্ত্র এখনও অব্যাহত রয়েছে। ১৫ আগস্ট এবং ২১ আগস্টের মধ্যে পার্থক্য আছে উল্লেখ করে আশরাফ বলেন, ১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্ট খুনিরা বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে ধ্বংস করতে চেয়েছিল। আর ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব ধ্বংস করতে চেয়েছিল। কিন্তু খুনিরা কোনোটিতেই সফল হয়নি। কারণ বাঙালি বঙ্গবন্ধুকে যেমন ভালোবাসে তেমনি আওয়ামী লীগকেও ভালোবাসে। আর এই ভালোবাসাই হচ্ছে আমাদের ভরসা।

জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শুক্কুর মাহমুদের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৭ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪০
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন