নিউইয়র্কে বাংলাদেশি ক্যাব চালকের মৃত্যু
গ্রীষ্মের ছুটিতে পরিবারকে বাংলাদেশে পাঠানোর মাত্র ১০ দিন পরে নিজেই লাশ হয়ে ফিরলেন নিউইয়র্ক প্রবাসী মো. সাজ্জাদ হোসেন (৪২)। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তির এক সপ্তাহ পরেই তিনি মারা যান। সাজ্জাদ হোসেন পেশায় ট্যাক্সিক্যাব চালক ছিলেন। তার আকস্মিক মৃত্যুতে স্বজন ও বন্ধুমহলে শোকের ছায়া নেমে আসে।

সাজ্জাদ হোসেনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু নিউইয়র্ক প্রবাসী আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক সাখাওয়াত বিশ্বাস ইত্তেফাককে জানান, ২০০০ সালে ডিভি লটারি জিতে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান সাজ্জাদ হোসেন। স্ত্রী, ১ ছেলে ও ১ মেয়েকে নিয়ে তিনি নিউইয়র্কের এস্টোরিয়ার ৩৬ অ্যাভিনিউতে বসবাস করতেন। গ্রীষ্মের ছুটিতে স্কুল বন্ধ হলে গত ১২ আগস্ট স্ত্রী ও ছেলে-মেয়েকে বাংলাদেশে বেড়াতে পাঠান। বিমানবন্দরে পরিবারের সদস্যদের বিদায় দিয়ে বাসায় ফিরেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরের দিন বাড়ির কাছে মাউন্ট সিনাই হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিত্সাও নেন। কিন্তু ৪ দিন পর গত ১৭ আগস্ট আবার অসুস্থ হয়ে পড়লে সাজ্জাদ হোসেনকে মাউন্ড সিনাই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে তার নিউমোনিয়া ধরা পড়ে। হাসপাতালে চিকিত্সাধীন অবস্থায় সাজ্জাদ হোসেনের কিডনি ও লিভার অকেজো হয়ে পড়ে। একপর্যায়ে গত ২৩ আগস্ট সন্ধ্যায় তিনি মারা যান।

সোমবার রাতে সাজ্জাদ হোসেনের মরদেহ এমিরেটস এয়ার লাইন্সের একটি ফ্লাইটে করে বাংলাদেশে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঢাকা জেলার সাভার উপজেলার জিরাবোতে সাজ্জাদ হোসেনের গ্রামের বাড়ি। সেখানেই তার মরদেহ দাফন করার কথা রয়েছে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৭ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪০
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন