ইংরেজি শিক্ষণে বদলে গেল প্রান্তিক কিশোরীদের জীবনপথ
বারেক কায়সার০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬ ইং
মানিকগঞ্জের প্রত্যন্ত এক গ্রামের মেয়ে লাকি আক্তার। পড়ছেন স্থানীয় একটি স্কুলে। নবম শ্রেণির এই ছাত্রী ক্রিকেট ভালোবাসেন। পছন্দের খেলোয়াড় ক্রিস গেইল! এই খেলোয়াড়কে নিজের চোখে দেখার খুব শখ তার। প্রিয় গেইলের সঙ্গে দেখা হলে কী করবেন? একগাল হেসে বললেন, ‘মিস্টার গেইল, হাউ আর ইউ?’ এটাই জানতে চাইবো।

লাকি আক্তারের মতো অনেক কিশোরী এখন ইংরেজিতে সাবলীলভাবে কথা বলতে পারেন। পারেন কম্পিউটার ব্যবহার করতে। ইংলিশ অ্যান্ড ডিজিটাল ফর গার্লস এডুকেশন (ইডিজিই) প্রকল্প তাদের এই আত্মবিশ্বাস গড়ে দিয়েছে। বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাক এবং ব্রিটিশ কাউন্সিল এ প্রকল্পের সঙ্গে আছে।

মানিকগঞ্জ, টাঙ্গাইল, গাইবান্ধা, খুলনা, চট্টগ্রাম ও সিলেটে ২৬৪টি ইডিজিই ক্লাব রয়েছে। এসব ক্লাবে ৫৯৯ জন দলনেতা আছেন। ক্লাবে নিয়মিত আসেন ৬ হাজার ৫৭৩ জন। স্কুল শেষ করে দুপুরের পরে এসব ক্লাবে আসে অংশগ্রহণকারী কিশোরীরা। অনেক সময় যোগদান করে কিশোররাও।

এসব ক্লাব ইংরেজিতে কথা বলা ও লেখার দক্ষতা তৈরিতে সাহায্য করে, নেতৃত্ব দেয়ার দক্ষতা বৃদ্ধি করে। এছাড়া নিজেদের অধিকার নিয়ে সচেতন হয় কিশোর-কিশোরীরা। পরবর্তীতে পরিবার, সমাজ এবং দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখতে পারছেন তারা। তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ে দক্ষতা বৃদ্ধির ফলে অন্যদের থেকে একধাপ এগিয়ে থাকেন।

মানিকগঞ্জের একটি ক্লাবে গিয়ে কথা হয় শ্যামলী দেবনাথের সঙ্গে। মানিকগঞ্জের দেবেন্দ্রনাথ কলেজে ইংরেজিতে অনার্স পড়ছেন তিনি। পড়াশোনা শেষ করে সরকারি চাকরি করার ইচ্ছে আছে তার। ইডিজিই থেকে সাহস পেয়েছেন। এখান থেকেই ডিজিটাল দক্ষতা অর্জন করেছেন। প্রত্যাশা, প্রত্যন্ত এলাকার কিশোরীদের উত্সাহিত করা। এসব কিশোরীদের কাছে হতে চান রোল  মডেল।

শ্যামলী দেবনাথ এখন মানিকগঞ্জ সদরের দুইটি কোচিং সেন্টার এবং একটি বাচ্চাদের স্কুলে ইংরেজি শেখান। তৃতীয় শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীদের পড়ান তিনি। নিজের পড়াশোনার খরচ চালিয়ে পরিবারকেও অর্থনৈতিক সহায়তা দিতে পারেন।

শ্যামলী দেবনাথ বলেন, আমি ইডিজিই ক্লাব থেকে লাভবান হয়েছি। মজায় মজায় এখানে শেখা যায়। ইংরেজি শেখা এবং কম্পিউটার শেখার কারণে আমি নিজেই আমার ক্যারিয়ার নিয়ে পরিকল্পনা করতে পারছি। এটার জন্য অবশ্যই ব্র্যাক এবং ব্রিটিশ কাউন্সিলকে ধন্যবাদ দিতে চাই।

মানিকগঞ্জের ইডিজিই ক্লাবের একজন সদস্য তানিয়া। এবার এসএসসি পাস করেছেন তিনি। পড়াশোনা শেষ করে তিনি ব্র্যাকে কাজ করতে চান। জানান, নিজের এলাকার মানুষের জন্য কিছু করার ইচ্ছা আছে।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৮ নভেম্বর, ২০১৯ ইং
ফজর৫:০৭
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০
পড়ুন