তুরস্কে নারী সেনারা এখন হিজাব পরতে পারবেন
২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ইং
ইত্তেফাক ডেস্ক

তুরস্ক সরকার সেনাবাহিনীর নারী সদস্যদের হিজাব পরার উপর যে নিষেধাজ্ঞা ছিল তা তুলে নিয়েছে। তুরস্কের সেনাবাহিনীকে দীর্ঘদিন ধরে দেশটির ধর্মনিরপেক্ষ সংবিধানের ধারক হিসাবে দেখা হতো। সামপ্রতিক সময়ে সেনাবাহিনীই ছিল দেশটির একমাত্র প্রতিষ্ঠান যেখানে এই নিষেধাজ্ঞা এতদিন বলবত্ ছিল। খবর বিবিসি’র

তুরস্কের বর্তমান প্রেসিডেন্ট গত দশ বছরে দেশটির স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয়সহ সব পাবলিক প্রতিষ্ঠান থেকে হিজাবের উপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। আধুনিক তুরস্কের প্রতিষ্ঠাতা কামাল আতাতুর্ক দেশটির সব সরকারি প্রতিষ্ঠানে হিজাব পরা নিষেধ বলে সংবিধানে উল্লেখ করে দিয়েছিলেন। কিন্তু গত এক দশকে তুরস্কের রক্ষণশীল প্রেসিডেন্ট রেসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান সেই নিষেধাজ্ঞা তুলে দিয়েছেন। স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয়, সরকারি অফিস, আদালত, পুলিশ বাহিনী সব জায়গাতেই হিজাব পরা যাবে বলে তিনি বলেছেন। এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় একমাত্র ছিল সেনাবাহিনী। এখন সরকার রায় দিল সেনাবাহিনীর নারী সদস্যদেরও এখন থেকে হিজাব পরার ক্ষেত্রে কোনো বাধা থাকবে না। এরদোয়ানের সমালোচকরা বলছেন তিনি সবার উপর তার ইসলামি এজেন্ডা চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছেন এবং ধর্মকে ব্যবহার করে সমর্থনের একটা ভিত্তি গড়ে তুলছেন।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ইং
ফজর৫:১০
যোহর১২:১৩
আসর৪:২১
মাগরিব৬:০১
এশা৭:১৪
সূর্যোদয় - ৬:২৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৬
পড়ুন