বিশ্ব বসতি দিবস উপলক্ষে আইডিইবি’র সভাপতি
গ্রামকে গুরুত্ব দিয়ে জাতীয় গৃহায়ণ নীতি নিতে হবে
ইত্তেফাক রিপোর্ট১১ অক্টোবর, ২০১৭ ইং
বিশ্ব বসতি দিবস উপলক্ষে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশের (আইডিইবি) কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি সভাপতি প্রকৌশলী একেএমএ হামিদ বলেছেন, সকল নাগরিকের জন্য অন্ন, বস্ত্র, শিক্ষা, চিকিত্সা ও বাসস্থান মৌলিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃত। এবার প্রেক্ষিতে গৃহ বা বাসস্থানের মৌলিক প্রতিটি অধিকার পূরণে জাতীয় গৃহায়ণ নীতি নিতে হবে। আর সেখানে শহরের মতো গ্রামকেও গুরুত্ব দিতে হবে। তাছাড়া স্বল্প ভূমির রাষ্ট্রে ঘনবসতিপূর্ণ বিশাল জনগণ বিবেচনায় এদেশের গৃহায়ণ নীতির মূল দর্শন বা নীতিতে কৃষি জমি রক্ষা করে সুপরিকল্পিত প্রযুক্তিনির্ভর আবাসন গড়ে তোলা দরকার। বিশ্ব আবাসন দিবস উপলক্ষে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এ পরামর্শ দেন। ১৯৮৬ সাল থেকে জাতিসংঘের উদ্যোগে প্রতিবছর অক্টোবর মাসের প্রথম সোমবার বিশ্ব বসতি দিবস উদযাপন হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, দেশের সমগ্র জনগোষ্ঠীর মধ্যে ৬৫ ভাগ মানুষ গ্রামে বাস করে এবং দেশের সর্বমোট গৃহের মধ্যে ৭৫ ভাগ গ্রামে অবস্থিত। এজন্য বাংলাদেশের জাতীয় গৃহায়ণ নীতিমালায় গ্রামীণ গৃহায়ণ নীতি এবং শহরের গৃহায়ণ নীতি নামে পৃথক ২টি অংশ থাকা দরকার। তাছাড়া আবাসনের জন্য পৃথক মন্ত্রণালয় গঠন এবং আবাসন সম্পর্কে সঠিকভাবে জরিপ করে নীতিমালা করার পরামর্শ দেন একেএমএ হামিদ।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ অক্টোবর, ২০২১ ইং
ফজর৪:৩৯
যোহর১১:৪৬
আসর৩:৫৮
মাগরিব৫:৪০
এশা৬:৫১
সূর্যোদয় - ৫:৫৪সূর্যাস্ত - ০৫:৩৫
পড়ুন