নিজেকে টেস্টে প্রমাণ করতে হবে
২৭ আগষ্ট, ২০১৫ ইং
নিজেকে টেস্টে প্রমাণ করতে হবে
ওয়ানডেতে সোনালী সময় কাটাচ্ছেন তিনি ব্যাট হাতে। অনেকেই তার মধ্যে দেখছেন বাংলাদেশের ভবিষ্যত্। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে এখনও নিজেকে খুঁজে পাচ্ছেন না। তিনি আসছে সময়টাকে দেখছেন নিজে একটা চ্যালেঞ্জ হিসেবে। ফিটনেস ক্যাম্পে ঘাম ঝরানোর এক ফাঁকে সৌম্য সরকার বলছিলেন নিজের লক্ষ্য নিয়ে—

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে টেস্টটা কতোটা গুরুত্বপূর্ণ?

খেলার জন্য সব সময় মুখিয়ে থাকি। অস্ট্রেলিয়াসহ আরো কয়েকটি দেশের সাথে। বিশ্বকাপে খেলার কথা ছিলো। কিন্তু খেলতে পারিনি। এখন টেস্ট সামনে; খেলতে পারলে বোঝা যাবে ঠিক কোথায় আছে আমাদের পারফর্ম্যান্স। খেলার অপেক্ষায় আছি।

ওয়ানডেতে জায়গা শক্ত করে ফেললেও টেস্টে তো এখনও নিজেকে প্রমাণ করতে পারেননি..

টেস্ট ক্রিকেটে যতোগুলো ম্যাচ খেলেছি, তাতে নিজেকে মেলে ধরতে পারিনি। এখন আমার মনোযোগ টেস্টে নিজেকে প্রমাণ করার। সেটা মাথায় রেখে অনুশীলন চলছে। টেস্টে নিজের জায়গা কিভাবে পাকা করা যায়, সেটা নিয়েই কাজ করছি। টেস্ট ব্যাটিং নিয়ে বিশেষ কিছু ভাবছেন?

টেস্টে নিজেকে প্রমাণ করতে হবে। সেটা এখনো আমি পারিনি। সেটা করতে পারলেই আশা করি, সামনের সময়টা আমার জন্য সহজ হয়ে যাবে।

টেস্টে নিজের শট পরিবর্তন নিয়ে কোনো ভাবনা আছে?

টেস্টের তুলনায় ওয়ানডে ভিন্ন। টেস্টের একটা আলাদা ধরন আছে। টেস্টের সৌন্দর্যটা অন্য রকম। আমি যেভাবে খেলি, সেটাই ধরে রাখতে হবে। এরপরও কিছু বিষয় আছে, যেখানে আরো কাজ করতে হবে। টেস্টের একটা আলাদা চাহিদা আছে, সেটা পূরণের জন্য কাজ করতে হবে।

টেস্টের আগে ন্যাশনাল লিগে দুটি ম্যাচ আছে। এটা নিশ্চয়ই কাজে দেবে?

এটা আমাদের জন্য দারুণ সুযোগ। সিরিজের আগে ম্যাচ খেলার সুযোগ পেলে সেটা সব সময়ই দারুণ কাজে দেয়। ম্যাচের মাধ্যমে অনুশীলনটা খুব ভালো হয়। এটা সবার জন্যই খুব ভালো সুযোগ।

পজিশন পরিবর্তনের জন্যই কি টেস্টে একটু কষ্ট হচ্ছে?

না। সেভাবে চিন্তা করিনি। আমার তো প্রাথমিক লক্ষ্য হলো যে কোনো পজিশনে সুযোগ পেলেই সেখানে, ভালো করা।

আপনাকে তো টেস্টে অনেক নিচে ব্যাট করতে হয়।

সাত আট নম্বরে ব্যাটিং করা কঠিন। ওই জায়গায় সাথে যদি ব্যাটসম্যান থাকে, তবে শট খেলা যায়। আবার টেল এন্ডারদের নিয়ে খেলতে হলে, অন্যভাবে খেলতে হয়। সব মিলিয়ে জায়গাটা খুব কঠিন।

শেষের দিকে ব্যাটিং করা চ্যালেঞ্জিং, নাকি দায়িত্ব পালনের সুযোগ?

এটা চ্যালেঞ্জের কিছু নয়। তবে দায়িত্ব পালনের বড় একটা সুযোগ থাকে। কারণ ওই জায়গার পজিশন একেক সময় একেক রকম হয়। আমি এভাবে খেলতে পছন্দ করি।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৭ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪০
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন