‘ফেবারিট’ ইংল্যান্ডকে রুখে দিল রাশিয়া
স্পোর্টস ডেস্ক১৩ জুন, ২০১৬ ইং
‘ফেবারিট’ ইংল্যান্ডকে রুখে দিল রাশিয়া
ইংল্যান্ড ‘ফেভারিট’ খেতাব নিয়ে এবারের ইউরোতে আসলেও গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম খেলাতেই জয় পেতে ব্যর্থ হয়েছে। কোচ রয় হজসনের দলকে জয় পেতে দেয়নি রাশিয়া। ১-১ গোলের ড্র দিয়ে শেষ হয়েছে দু’দলের মধ্যকার ‘বি’ গ্রুপের লড়াইটি। খেলার অন্তীম সময়ে দুর্দান্ত একটি গোল করে রাশিয়ার ‘জয়তুল্য’ ড্র’য়ে অবদান রাখেন অধিনায়ক ভাসিলি বেরেজুতস্কি।

একই গ্রুপের দল ওয়েলস স্লোভাকিয়ার বিপক্ষে ২-১ গোলের জয় দিয়ে ইউরোয় শুভ সূচনা করেছে।

বাছাইপর্বে শতভাগ সাফল্যের পর তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ পারফরম্যান্সে ‘ফেভারিট’ তকমায় ইউরো অভিযানে নামে ইংল্যান্ড। কিন্তু মূল প্রতিযোগিতার শুরুতেই তাদের দেখা গেলো পুরনো চেহারাতেই। এগিয়ে গিয়েও রাশিয়ার বিপক্ষে পয়েন্ট হারিয়েছে দলটি।

খেলায় অসংখ্য সুযোগ তৈরি করে ইংল্যান্ড। বল দখল আর আক্রমণে লম্বা সময় ধরে নিয়ন্ত্রকের আসনে ছিল তারাই। কিন্তু সুযোগ কাজে লাগাতে না পারায় হতাশায় মাঠ ছাড়তে হয় ওয়েন রুনিদের। খেলা শেষে ইংল্যান্ড অধিনায়ক বলেন, ‘না জিততে পারায় আমি স্বাভাবিকভাবেই হতাশ। সত্যিকার অর্থেই আমরা দারুণ খেলেছি, ভালো সুযোগ তৈরি করেছি এবং খেলাটি নিয়ন্ত্রণ করেছি।’ 

মার্সেইয়ের স্টেডে ভ্যালোড্রেমেতে শনিবার রাতে অনুষ্ঠিত ম্যাচটির শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক মেজাজের ফুটবল খেলে ইংল্যান্ড। এরিক দিয়েরের গোলে যায় কোচ হজসনের দল। এই গোলের ওপর ভর করেই জয় দেখছিলো ইংলিশরা। কিন্তু ইনজুরি টাইমে দারুণ এক হেডে তাদের হতাশ করেন রাশিয়ান অধিনায়ক বেরেজুতস্কি।

প্রথমার্ধে সব মিলিয়ে নয়বার ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়রা গোলের লক্ষ্যে শট নেয়, কিন্তু সাফল্য অধরাই রয়ে যায়। বিপরীতে ফিফা র্যাংকিংয়ে ২৯তম রাশিয়ার শট মাত্র একটি। প্রথমার্ধে নিজেদের রক্ষণ সামলাতেই তাদের বেশি মনোযোগী থাকতে হয়। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের উল্টো চেহারা, গুছিয়ে ওঠা রাশিয়া উঠতে থাকে পাল্টা আক্রমণে। প্রথম ২০ মিনিটে গোলের লক্ষ্যে চারটি শটও নেয় তারা, অবশ্য এর একটিই মাত্র লক্ষ্যে ছিল। গোলশূন্য থেকে যায় খেলা। ৭১তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো ইংল্যান্ড, কিন্তু ওয়েন রুনির জোরালো শট ডানদিকে দক্ষতার সঙ্গে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক ইগর আকিনফিভ।

এর দুই মিনিট পরেই ২০ গজ দূর থেকে দুর্দান্ত এক ফ্রি-কিকে ইংলিশ সমর্থকদের উল্লাসে ভাসান টটেনহ্যাম হটস্পারের মিডফিল্ডার দিয়ের।

রেফারির শেষ বাঁশি বাজানোর আগ পর্যন্ত এই ব্যবধান ধরে রাখতে পারেনি ইংল্যান্ড। ইনজুরি টাইমের দ্বিতীয় মিনিটে রুনিদের জয়ের স্বপ্ন শেষ করে দেন ভাসিলি। জোরালো হেডে গোলরক্ষক জো হার্টকে পরাস্ত করেন সিএসকে মস্কোর এই ডিফেন্ডার।

জয় পাওয়ার প্রত্যাশার ম্যাচে শেষ পর্যন্ত হার মানায় খেলা শেষে হতাশা ব্যক্ত করলেন ইংল্যান্ড কোচ হজসন, ‘বলতে গেলে আমরা খুবই হতাশাগ্রস্ত। প্রত্যাশিত জয়ের কাছে গিয়েও অতিরিক্ত সময়ে পরাজিত হওয়া— এমনটা মানা খুবই কঠিন। কিন্তু ফুটবলে এমনটা ঘটে থাকে।’

ইংল্যান্ড-রাশিয়া ম্যাচের আগে ইউরোয় প্রথমবারের মতো খেলার সুযোগ পাওয়া দুই দল ওয়েলস-স্লোভাকিয়ার মধ্যে হওয়া ‘বি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে শুভ সূচনা করেছেন ওয়েলস। খেলার দশম মিনিটে গ্যারেথ বেলের গোলে প্রথমে এগিয়ে যায় দলটি। দ্বিতীয়ার্ধে অন্দ্রেজ দুদার গোলে সমতা ফেরায় স্লোভাকিয়া। খেলার ৮১তম মিনিটে গোল করে ওয়েলসকে জয়ে ভাসান হল রবসন ক্যানু। ইউরো মঞ্চে প্রথম খেলাতেই ওয়েলসকে জয় এনে দিতে পারায় দারুণ খুশি অধিনায়ক বেল। খেলা শেষে ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদের তারকাটি বলেন, ‘এটা আমাদের দেশের জন্য স্মরণীয় ও ঐতিহাসিক মুহূর্ত।’—সুপার স্পোর্টস, সকারওয়ে

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১৩ জুন, ২০২১ ইং
ফজর৩:৪৩
যোহর১১:৫৯
আসর৪:৩৯
মাগরিব৬:৪৯
এশা৮:১৪
সূর্যোদয় - ৫:১১সূর্যাস্ত - ০৬:৪৪
পড়ুন