আজ অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছে দলের একাংশ
নতুন অধ্যায়ের সূচনায় বাংলাদেশ
০৮ ডিসেম্বর, ২০১৬ ইং
g স্পোর্টস রিপোর্টার

দেশে প্রতিপক্ষ বেছে নেওয়ার সুযোগ থাকলে বাংলাদেশ নিশ্চয়ই নিউজিল্যান্ডকেই বেছে নিতো।

নিজেদের মাটিতে শেষ দুইটি ওয়ানডে সিরিজেই হোয়াইট ওয়াশ করা এই দলটি। দেশের মাটিতে এই দলটার বিপক্ষে শেষ তিনটি টেস্টই দাপটের সাথে ড্র করেছে বাংলাদেশ; কিন্তু এই নিউজিল্যান্ডেই আবার সফর হওয়ার কথা বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে আতঙ্কের ব্যাপার। এই দেশটিতে যে সুখস্মৃতি বলে কিছুই নেই।

নিউজিল্যান্ডের মাটিতে এ পর্যন্ত বাংলাদেশ ১৩টি ম্যাচ খেলেছে তিন ফরম্যাটের। সব কটিতে এসেছে পরাজয়; বেশিরভাগ ফলাফল ভুলে যাওয়ার মতো খারাপ ছিলো; কিন্তু সেই সময়টা বদলে গেছে। বাংলাদেশ এখন নিজেকে আস্তে আস্তে নতুন শক্তি হিসেবে চেনাতে শুরু করেছে। এই চেনানোর পর্বে বাংলাদেশের প্রথম দ্বি-পাক্ষিক সিরিজের জন্য বিদেশ সফর হতে যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড।

জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর মতে এটা আসলে বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য নতুন এক অধ্যায় হতে পারে, ‘আমরা দেশের মাটিতে একটানা ভালো ক্রিকেট খেলছি, সাফল্য পাচ্ছি। এর মাঝে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে ভালো করে এসেছি বিশ্বকাপেও। তারপরও সবাই কিন্তু বলছে, বাংলাদেশের পরীক্ষা হবে দেশের বাইরে। লম্বা সময় পর আমরা সেই অ্যাওয়ে সিরিজ খেলতে যাচ্ছি। এরপর আমাদের বেশ কিছু বাইরের সিরিজ আছে। ফলে বলা যায়, নিউজিল্যান্ড থেকে নতুন একটা চ্যাপ্টার শুরু হচ্ছে।’ আর এই সফরের ইতিহাস বদলানো, নিজেদের পরিচয় নতুন করে জানান দেওয়ার জন্য বাংলাদেশের ২২ সদস্যের ১৪ থেকে ১৬ সদস্যের দল আজই রওনা হয়ে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ায় ক্যাম্প করার জন্য। ঠিক কত জন সদস্য আজ রওনা দেবেন, তা ঠিক হওয়ার কথা গতকাল রাতে হওয়া বিপিএল কোয়ালিফায়ারের ওপর। টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমসহ ১২ জন সদস্য আজ যাচ্ছেন নিশ্চিত। এ ছাড়া খুলনা বা রাজশাহী, যে দল বাদ পড়বে, তাদের জাতীয় দলে থাকা খেলোয়াড়রাও যাচ্ছেন আজ।

বাংলাদেশ সরাসরি নিউজিল্যান্ড যাচ্ছে না।

তাসমানিয়ান এলাকার পরিবেশ ও উইকেট কখনোই উপ-মহাদেশীয়দের জন্য সহজ সফরের জায়গা নয়। উইকেটের বিপরীত চরিত্রের সাথে খাপ খাইয়ে নিতেই লম্বা সময় লাগে। সেই সময়টা পাচ্ছে বাংলাদেশ। ঠিক নিউজিল্যান্ডে না হলেও প্রতিবেশী অস্ট্রেলিয়ায় সপ্তাহ দেড়েকের একটি ক্যাম্প করবে দল। সব ঠিক থাকলে ১৮ ডিসেম্বর অস্ট্রেলিয়া থেকে নিউজিল্যান্ড চলে যাবে দল। সেখানে তিন ধাপে ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি ও টেস্টের দল ঘোষণা করা হবে।  সিডনিতে এই ক্যাম্পের পাশাপাশি বিগ ব্যাশের দুইটি দল সিডনি সিক্সার্স ও সিডনি থান্ডার্সের বিপক্ষে দুইটি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। এই ক্যাম্প পর্বে ব্যাক-আপদেরও প্রস্তুতি ঠিক রাখার জন্য বাংলাদেশ দল নিয়ে যাচ্ছে ২২ সদস্যের বিশাল দল। এই দলে এবাদত হোসেন, নাজমুল হোসেন শান্তর মতো তরুণকেও রাখা হয়েছে বিদেশ সফর বা এই ধরনের কন্ডিশনের সাথে পরিচিত করার জন্য। দল নিউজিল্যান্ডে যাওয়ার আগে অতিরিক্ত খেলোয়াড়রা অবশ্য ফিরে আসবেন। তখন বাকিদের জন্য চ্যালেঞ্জ থাকবে নিউজিল্যান্ড জয়ের। নান্নু বলছিলেন, এই সফরটা সত্যিই কঠিন একটা পরীক্ষা হবে। তবে সেখানে একটা ভালো ভূমিকা রাখতে পারে অস্ট্রেলিয়ার ক্যাম্পটা, ‘নিউজিল্যান্ড সফর যে কোনো দলের জন্যই কঠিন। আমরা চেষ্টা করছি, ওখানকার জন্য যতোটা প্রস্তুতি অস্ট্রেলিয়া থেকে নেওয়া যায়। আমরা আশা করছি, ছেলেরা ভালো ক্রিকেট খেলে ফিরবে।’

সফর সূচী

তারিখ              ম্যাচ                   ভেন্যু

২৬ ডিসেম্বর       ১ম ওয়ানডে         ক্রাইস্টচার্চ

২৯ ডিসেম্বর       ২য় ওয়ানডে         নেলসন

৩১ ডিসেম্বর       ৩য় ওয়ানডে         নেলসন

০৩ জানুয়ারি      ১ম টি-টোয়েন্টি     নেপিয়ার

০৬ জানুয়ারি      ২য় টি-টোয়েন্টি     মঙ্গানুই

০৮ জানুয়ারি      ৩য় টি-টোয়েন্টি     মঙ্গানুই

১২-১৬ জানুয়ারি ১ম টেস্ট               ওয়েলিংটন

২০-২৪ জানুয়ারি ২য় টেস্ট               ক্রাইস্টচার্চ

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
৮ নভেম্বর, ২০১৯ ইং
ফজর৫:০৭
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০
পড়ুন