আইসল্যান্ডকে আনন্দে ভাসাল ফুটবলাররা
১১ অক্টোবর, ২০১৭ ইং
আইসল্যান্ডকে আনন্দে ভাসাল ফুটবলাররা
রাশিয়া বিশ্বকাপ

g  স্পোর্টস ডেস্ক 

প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে উঠে আইসল্যান্ডকে আনন্দে ভাসাল সেদেশের ফুটবলাররা। দলটির কোচ হেইমার হলগ্রিমসন তো বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না কসোভোকে ২-০ গোলে হারানোর সুবাদে তার দল রাশিয়া বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে ফেলেছে। গোল দুটি করেন ইংলিশ ফুটবলের ক্লাব এভার্টনের জিলফি সিগার্ডসন ও বার্নলির জোহান গুডমুন্ডসন।

অমন সাফল্যের পর আইসল্যান্ডবাসী আনন্দে ভাসলেন। রাজধানীর রিকইয়াভিক শহরের কেন্দ্রভাগে হাজার হাজার মানুষ নেচে গেয়ে উঠলেন, তাতে যোগ দিলেন জাতীয় দলের ফুটবলাররাও। তাদের উত্সবে মাতোয়ারা হওয়ার আরো একটা কারণ হলো সবচেয়ে কম জনসংখ্যার দেশ হিসেবেও তারাই প্রথম বিশ্বকাপে খেলতে যাচ্ছে। দেশটির জনসংখ্যা কেবল তিন লাখ ৩৩ হাজার। আগে এ রেকর্ডটি ছিল ত্রিনিদাদ এন্ড টোবাগোর।

গেল বছরের ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপেই কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেই সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছিল আইসল্যান্ড। সে ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখে এই প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে খেলা নিশ্চিত করলো দেশটি। গত সোমবার রাতে ইউরোপীয় বাছাইয়ের খেলাগুলো শেষে ২০১৮ বিশ্বকাপের টিকেট পেল সার্বিয়াও।

কসোভোর বিরুদ্ধে শেষ রাউন্ডের জয়ে আইসল্যান্ড ‘আই’ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে এ যোগ্যতা অর্জন করলো।  অপরদিকে ইউক্রেনকে ২-০ গোলে হারিয়ে রানার্স আপ হয়ে প্লে অফে খেলার সুযোগ পেল ক্রোয়েশিয়া।

কোচ হেইমার তো খেলা শেষে আনন্দে আত্মহারা হয়ে যান। ফুটবল কোচিংয়ের পাশাপাশি খণ্ডকালীন দন্ত চিকিত্সক হেইমার দেশটির  অধিনায়ক কার্ডিফ সিটিতে খেলা মিডফিল্ডার অ্যারন আইনার গুনারসনকে খোদ পেলে ও ম্যারাডোনার মতো কিংবদন্তিদের সঙ্গেও তুলনা করে ফেলেন। তিনি অবশ্য বলেছেন,‘আমি আসলেই বুঝতে পারছি না কি বলতে হবে। মন তো সর্বত্র ঘুরে বেড়াচ্ছে। আমার মতে পেলে, ম্যারাডোনা ও অ্যারন আইনার গুনারসন।’ তিনি অবশ্য এও বলেন যে, সাফল্য মানে কোনো কিছুর সমাপ্তি নয়। বরং এটা হলো চূড়ান্ত লক্ষ্যের দিকে দীর্ঘ এক যাত্রা।

কসোভো কোচ আলবার্ট বুনজাকি জানান, আইসল্যান্ডের এ সাফল্য ছোট ছোট দেশগুলোর জন্য অনুপ্রেরণা। কসোভোও ছোট দেশ। তাই তিনি বলেন,‘অভিনন্দন পুরো আইসল্যান্ড দলকে। এটা ছোট দেশগুলোর জন্য দারুণ এক উদাহরণ। আমাদের মতো তাদের লক্ষ্য হলো ভবিষ্যতের জন্য একটা ভালো দল, খুবই গোছানো।’

সার্বিয়া ‘ডি’ গ্রুপে জর্জিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়ে চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করেছে। ছয় জয় ও তিন ড্রয়ে তাদের পয়েন্ট ২১। গ্রুপের অপর খেলায় গ্যারেথ বেলের ওয়েলসকে ১-০ গোলে হারিয়ে রানার্স আপ হয়েছে রিপাবলিক অব আয়ারল্যান্ড। 

স্পেন ‘জি’ গ্রুপ থেকে আগেই বিশ্বকাপ নিশ্চিতের পর শেষ রাউন্ডের খেলায় ইসরায়েলকে ১-০ গোলে হারালো। নয় জয় ও এক ড্রয়ে ২০১০ বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নরা পেল ২৮ পয়েন্ট। গ্রুপের অপর খেলায় আলবেনিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়েছে রানার্স আপ ইতালি। সাত জয় ও দুই ড্রয়ে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের অর্জন ২৩ পয়েন্ট। সকারওয়ে/বিবিসি

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ অক্টোবর, ২০২১ ইং
ফজর৪:৩৯
যোহর১১:৪৬
আসর৩:৫৮
মাগরিব৫:৪০
এশা৬:৫১
সূর্যোদয় - ৫:৫৪সূর্যাস্ত - ০৫:৩৫
পড়ুন