ভারত সফরে প্রত্যাশা মিটেনি রুমানার
স্পোর্টস রিপোর্টার২০ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
ভারত সফরে প্রত্যাশা মিটেনি রুমানার
বিজয় দিবসে ভারত সফরের শেষ ম্যাচে পাওয়া একমাত্র জয় নিয়েই গত ১৭ ডিসেম্বর রাতে ঢাকায় ফিরেছে বাংলাদেশ নারী ‘এ’ দল। ওয়ানডে সিরিজে ৩-০ তে, টি-টোয়েন্টিতে ২-১ ব্যবধানে স্বাগতিকদের কাছে সিরিজ হেরেছিল সফরকারীরা। গতকাল বিসিবি একাডেমি ভবনে ওয়ানডে দলের অধিনায়ক রুমানা আহমেদ বলেছেন, ভারত সফরে অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন হয়েছে। তবে দল হিসেবে প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফর্ম করতে পারেনি বাংলাদেশ।

ছয় ম্যাচের একটিতে জয়। দল হিসেবে আশানুরূপ পারফরম্যান্স দেখা যায়নি। ব্যাটিং, বোলিংয়ে কঠিন সময় কেটেছে বাংলাদেশের নারী ক্রিকেটারদের। রুমানা বলেন, ‘সফর থেকে আমরা অনেক অভিজ্ঞতাই অর্জন করেছি। তবে আমরা যে আশাটা করেছিলাম, সেই অনুযায়ী ভালো হয় নাই। আমরা ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে আরেকটু রান এবং বোলারদের কাছ থেকে আরেকটু ভালো বোলিং চেয়েছিলাম। এবার বোলাররা ভালো করতে পারেনি। ভালো দলের সঙ্গে খেললে বোঝা যায়, আমরা কতটুকু পিছিয়ে আছি। আমাদের কি কি করা দরকার আছে।’

‘এ’ দলের ব্যানার থাকলেও কার্যত জাতীয় দলটাই ভারত সফরে পাঠিয়েছিল বিসিবি। ভারত অবশ্য তাদের ‘এ’ দলটাই খেলিয়েছে গোটা সিরিজে। সেই দলের সম্পর্কে রুমানা ধারণা দিয়েছেন এমন, ‘বেশ কয়েকজন টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান আর বোলার ছিলেন। এছাড়া ওদের একজন ওপেনার ছিলেন যার জাতীয় দলের হয়ে সাতটা সেঞ্চুরি আছে। তো ওদের অভিজ্ঞ খেলোয়াড় ছিল অনেক। ওদের ‘এ’ দলটা অনেক আগে থেকে। যারা জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ে তারা ‘এ’ দলে থাকে। ওদের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার ছিল অনেক।’

ভারত সফরে এবার বাংলাদেশ নারী দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন দুজন। ওয়ানডেতে রুমানা, টি-টোয়েন্টিতে সালমা খাতুন অধিনায়কত্ব করেছেন। টানা পাঁচ ম্যাচ হারের পর বিজয় দিবসে অসাধারণ জয় পায় বাংলাদেশ। ৩৯ রানের জয় সম্পর্কে এ অলরাউন্ডার বলেছেন, ‘আমরা আগের দিন অনুশীলন থেকেই একটা প্রতিজ্ঞা করেছিলাম। আগামী যে ম্যাচটা খেলতে যাচ্ছি সেটা কিন্তু বিজয় দিবসের দিন। সেদিন আমরা বিজয় লাভ করেছি, কাজেই আমরাও কিছু করতে চাই। আমরা এরকম একটা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিলাম আগের দিন থেকে। আমরা প্রথম থেকেই তাই আক্রমণাত্মক ছিলাম। অন্য ম্যাচগুলোর চেয়ে ফিল্ডিং এদিন অনেক ভালো হইছে। কোচ অনেক খুশি ছিলেন। তিনি আমাদের বলেছেন, আজ যেটা খেলেছ এটা হলো তোমাদের আসল খেলা।’

ভারত সফরে ব্যাটিংয়ে, বোলিংয়ে ব্যক্তিগতভাবে ভালো সময় কেটেছে রুমানার। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন তিনি। ৭৯ রান করেন রুমানা। বোলিংয়েও দুটি উইকেট নিয়েছিলেন এ লেগ স্পিনার। ক্রিকেটার হিসেবে প্রতিনিয়ত উন্নতির চেষ্টা করেন রুমানা। উল্লেখ্য, আগামী ১০ জানুয়ারি বিগ ব্যাশ টি-টোয়েন্টি লিগ খেলতে অস্ট্রেলিয়া যাবেন রুমানা। ১৬ জানুয়ারি অস্ট্রেলিয়ার বিমানে চড়বেন আরেক স্পিনার খাদিজাতুল কোবরা।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২০ নভেম্বর, ২০২১ ইং
ফজর৫:১৪
যোহর১১:৫৬
আসর৩:৪০
মাগরিব৫:১৯
এশা৬:৩৭
সূর্যোদয় - ৬:৩৫সূর্যাস্ত - ০৫:১৪
পড়ুন