প্রিমিয়ার লিগে আবার ‘প্লেয়ার্স বাই চয়েস’
২০ ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং

n   ১.  ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ শুরু ২০ জানুয়ারি

n   ২.  দলবদল হবে প্লেয়ার্স বাই চয়েস পদ্ধতিতে

n   ৩.  চারজন করে ক্রিকেটার ধরে রাখতে পারবে ক্লাবগুলো

n   ৪.  প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ আট দল নিয়ে আলাদা টি-                              টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট

n   ৫.  প্রথম বিভাগ লিগ পিছিয়েছে

 স্পোর্টস রিপোর্টার

শেষ কবে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে হয়েছে? ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটের অনেক কর্মকর্তাই স্মরণ করতে পারছেন না ক্রিকেটের ভরা মৌসুম তথা শীতকালে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ হওয়ার তথ্য। এটুকু নিশ্চিত নাজমুল হাসান পাপনের নেতৃত্বাধীন বোর্ডের আমলে কখনোই বছরের শুরুতে মাঠে গড়ায়নি প্রিমিয়ার লিগ।

প্রচণ্ড খরা, রোদ, বৃষ্টির মৌসুম নয় এবার ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ শুরু হবে আগামী ২০ জানুয়ারি। ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিসের (সিসিডিএম) নতুন চেয়ারম্যান কাজী ইনাম গতকাল সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়েছেন।

বিসিবি পরিচালক কাজী ইনাম আরো অনেক সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন এদিন। ক্লাবগুলোর দাবির কারণে লিগে এবার ক্রিকেটারদের দলবদল হবে প্লেয়ার্স বাই চয়েস পদ্ধতিতে। আগের বছরের দল থেকে চারজন করে ক্রিকেটার ধরে রাখতে পারবে (রিটেইন) ক্লাবগুলো। সুপার লিগের খেলা সম্প্রচারের চেষ্টা করবে বিসিবি। প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষ আট দল নিয়ে হতে পারে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। প্রথম বিভাগ ক্রিকেট লিগ পিছিয়ে যাচ্ছে। প্রিমিয়ার লিগের পাশাপাশি হবে দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেট লিগ। তারপর তৃতীয় বিভাগ ক্রিকেট লিগ হবে।

জানুয়ারি মাসে লিগ শুরুর বিষয়ে কাজী ইনাম বলেছেন, ‘প্রিমিয়ার লিগ গত কয়েক বছরে দেখেছি বৃষ্টির সময়, রোজার সময় হয়। অনেক ক্লাবই আমাদেরকে এটা নিয়ে বলেছে। আমরাও ক্লাবগুলোর সঙ্গে কথা বলেছি। জানুয়ারি ২ বা ৩ তারিখ আমরা ক্লাব কর্তাদের সঙ্গে বসব। প্রিমিয়ার লিগ আবার আমরা জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে ফিরিয়ে আনতে। এবার জানুয়ারির ২০ তারিখ আমরা শুরুর চেষ্টা করব। তার ৮-১০ দিন আগে প্লেয়ার্স বাই চয়েস ড্রাফট যাতে করা যায়, সেটির জন্য ইতোমধ্যেই ক্লাবগুলোর সঙ্গে কথা বলছি।’

গত বছরের মতো স্বাধীনভাবে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে দল বেছে নিতে পারবেন না ক্রিকেটাররা। লিগে আবারো ফিরে আসছে প্লেয়ার্স বাই চয়েস পদ্ধতি। গ্রেডিং অনুযায়ী পারিশ্রমিক নির্ধারণ করা হবে। তবে অতীতের তুলনায় গ্রেডিং অনুযায়ী পারিশ্রমিক বাড়বে ক্রিকেটারদের। ক্লাবগুলোও পারবে আগের বছরের দল থেকে পছন্দের চার ক্রিকেটারকে ধরে রাখতে।

সিসিডিএম চেয়ারম্যান বলেছেন, ‘এবার আমরা প্লেয়ার্স বাই চয়েস পদ্ধতিতে দলবদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অনেকগুলো ক্লাব আমাদের কাছে অনুরোধ করেছে। পাশাপাশি আমরা যেটি বিবেচনা করে দেখেছি, আমাদের জাতীয় দলের অনেক ক্রিকেটার খেলতে পারবে না। কারণ লিগ হবে জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি-মার্চে। প্রতিটি ক্লাব চারজন করে ক্রিকেটার ধরে রাখতে (রিটেইন করতে) পারবে।’

কার্যত জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ছাড়াই হবে প্রিমিয়ার লিগ। কিছু ম্যাচ হয়ত খেলতে পারবেন তারকা ক্রিকেটাররা। জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক সিরিজে ব্যস্ত থাকবে জাতীয় দল। মার্চেও শ্রীলঙ্কায় ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবেন সাকিব-তামিমরা।

প্রিমিয়ার লিগে ঢাকার ভেতরের মাঠগুলো ব্যবহারের চিন্তা করছে বিসিবি। সিসিডিএম চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, আবাহনী মাঠ, বুয়েট, ঢাবি মাঠ কাজে লাগানোর চেষ্টা করা হবে। ঘরোয়া ক্রিকেটের আকর্ষণীয় টুর্নামেন্ট হলেও প্রিমিয়ার লিগ কখনোই সম্প্রচার হয় না টিভিতে। এবার সুপার লিগ সম্প্রচারের টার্গেট করা হচ্ছে।

বিপিএলের বাইরে আলাদা টি-টোয়েন্টি লিগটি ক্লাবগুলোকে নিয়ে করতে চায় বিসিবি। সিসিডিএম চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমাদের চিন্তা-ভাবনা আছে, প্রিমিয়ার লিগের সুপার লিগে যে দলগুলো উঠবে সেই ৬ দল, কিংবা লিগের শীর্ষ ৮ দলকে নিয়ে একটি টি-টোয়েন্টি লিগ করব।’ এ টুর্নামেন্টটি মিরপুর স্টেডিয়ামেই আয়োজনের ইচ্ছা বিসিবির।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২০ নভেম্বর, ২০২১ ইং
ফজর৫:১৪
যোহর১১:৫৬
আসর৩:৪০
মাগরিব৫:১৯
এশা৬:৩৭
সূর্যোদয় - ৬:৩৫সূর্যাস্ত - ০৫:১৪
পড়ুন