আরো কিছু গোসসা নিবারণী প্রতিষ্ঠান
১১ মার্চ, ২০১৮ ইং
/ / গ্রন্থনা সাইফুল ইসলাম জুয়েল

 

ঢাকায় নির্মিত হচ্ছে গোসসা নিবারণী পার্ক। তো গোসসা নিবারণী পার্কের মতো আরো যেসব প্রতিষ্ঠান হওয়া দরকার সেগুলো একটু দেখে আসা যাক—

 

জাতীয় গোসসা কমিশন :এই কমিশনের প্রধান কাজ হবে দেশে গঠিত সকল প্রকার গোসসার সঠিক তদন্ত করা এবং সেই তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া।

 

জাতীয় গোসসা পুনর্বাসন কেন্দ্র :এখান থেকে গোসসার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়াও যারা কথায় কথায় গোসসা করে তাদের যাবতীয় চিকিত্সার ব্যবস্থা করা হবে।

 

গোসসা কোচিং সেন্টার :দেশে এখন কোচিং বিজনেস তুঙ্গে। তাই গোসসা কোচিং দেওয়া লোকসানের কিছু হবে না। এই কোচিং সেন্টারে কীভাবে গোসসা কন্ট্রোল করা যায়, কীভাবে গোসসা করলে কোনো কিছু আদায় করা সম্ভব, কখন গোসসা করা উচিত, কখন উচিত নয় ইত্যাদি সকল বিষয়ে অভিজ্ঞ শিক্ষক দ্বারা ক্লাস নেওয়া হবে।

 

গোসসা ক্লাব :ঢাকা ক্লাব, চিটাগাং ক্লাব এগুলোর মতো গোসসা ক্লাবও গড়ে তোলা যেতে পারে। যে ক্লাবগুলো জাতীয় বা বিভাগীয় পর্যায়ে বিভিন্ন প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে পারে। এসকল প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মেডেল ও সনদ তুলে দেওয়া হবে এবং তারা মি. বা মিস গোসসা বলে বিবেচিত হবেন।

রাজিব দেবনাথ

মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ মার্চ, ২০১৯ ইং
ফজর৪:৫৬
যোহর১২:০৯
আসর৪:২৭
মাগরিব৬:০৯
এশা৭:২১
সূর্যোদয় - ৬:১১সূর্যাস্ত - ০৬:০৪
পড়ুন