শেয়ার প্রতি আয় বেড়েছে ফারমার্স ব্যাংকের
১১ অক্টোবর, ২০১৭ ইং
বাড়ছে এসএমই খাতে ঋণ

g ইত্তেফাক রিপোর্ট

সামগ্রিক ঋণ বিতরণ, আমানত গ্রহণ, রেমিট্যান্স সংগ্রহ, রপ্তানি, খেলাপি ঋণ আদায় ও ব্যাংকের প্রসারসহ প্রায় সব সূচকেই গত বছর উন্নতি হয়েছে ফারমার্স ব্যাংকের। বার্ষিক প্রতিবেদনে আরনিং পার শেয়ার (ইপিএস) ২০১৫ আর্থিক বছরের চেয়ে দুই পয়েন্ট বেড়েছে। জানা গেছে, ২০১৩ সালের ৩ জুন চতুর্থ প্রজন্মের ব্যাংক হিসাবে দি ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের যাত্রা শুরু হয়। বর্তমানে ব্যাংকটির শাখার সংখ্যা ৫৬ এবং এটিএম বুথের সংখ্যা ১১টি। প্রতিষ্ঠার পর থেকে ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকটি মোট ঋণ বিতরণ করেছে ৪ হাজার ৪১৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। এরমধ্যে গত বছর প্রায় ১ হাজার ৮৩৯ কোটি ৭৯ লাখ টাকা বিতরণ করেছে ব্যাংকটি। এক্ষেত্রে ১ বছরের ব্যবধানে ফারমার্স ব্যাংকের ঋণ বিতরণে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৭১ দশমিক ৪৯ শতাংশ।

এদিকে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী, ২০১৬ সালে এসএমই খাতে ঋণ বিতরণে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে ফারমার্স ব্যাংক। এ খাতে ৪৮০ কোটি টাকা ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে ফারমার্স ব্যাংক প্রায় ৫০৫ কোটি ৩৯ লাখ টাকা বিতরণ করেছে। এ নিয়ে ২০১৬ সাল পর্যন্ত মোট বিতরণ হওয়া ঋণের মধ্যে এসএমই খাতে ফারমার্স ব্যাংক প্রায় ১ হাজার ২৪৪ কোটি ৫ লাখ টাকা বিতরণ করেছে। অন্যদিকে ২০১৬ সালে কৃষি খাতে ৬০ কোটি টাকা ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে প্রায় ৬১ কোটি ৫০ লাখ টাকা বিতরণ করেছে ফার্মাস ব্যাংক।

ব্যাংকটির পরিচালনা পরিষদের সদস্য ও অডিট কমিটির চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুল হক চিশতী বলেন, আমাদের আমানতকারীদের কল্যাণের কথা মাথায় রেখে সব সময় ভাল গ্রাহক দেখে ঋণ দিতে প্রত্যেক শাখাকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। গত বছরের শুরুতে ২৭৭ কোটি টাকা খেলাপি ঋণ থাকলেও বছর শেষে তা কমে ১৭১ কোটি টাকায় নেমে এসেছে। মন্দ ঋণের বিপরীতে মামলা করায় ঋণ আদায় আগের তুলনায় বেড়েছে। চলতি বছর শেষে আদায়ের হার ৮৫ থেকে ৯০ শতাংশ ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা করছেন ব্যাংকের কর্মকর্তারা।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ অক্টোবর, ২০২১ ইং
ফজর৪:৩৯
যোহর১১:৪৬
আসর৩:৫৮
মাগরিব৫:৪০
এশা৬:৫১
সূর্যোদয় - ৫:৫৪সূর্যাস্ত - ০৫:৩৫
পড়ুন