জাতিসংঘে পতাকা উত্তোলন
ফিলিস্তিনের সহপ্রস্তাবক হবে না ভ্যাটিকান
২৭ আগষ্ট, ২০১৫ ইং
রয়টার্স জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর পতাকার সারির পরে পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রগুলোর পতাকা তোলার একটি প্রস্তাবে ফিলিস্তিনের সঙ্গে যৌথ প্রস্তাবক না হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভ্যাটিক্যান। এ সিদ্ধান্তের আলোকে মঙ্গলবার ফিলিস্তিনের জাতিসংঘ মিশনের প্রতি তাদের তৈরি খসড়া প্রস্তাব থেকে নিজেদের নাম বাদ দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছে ভ্যাটিক্যান।  খসড়া ওই প্রস্তাবটি রয়টার্সের কাছে এসেছে। তাতে বলা হয়েছে, জাতিসংঘের সদর দপ্তর ও অন্যান্য দপ্তর সদস্য রাষ্ট্রগুলোর পতাকার পর পর্যবেক্ষক রাষ্ট্রগুলোর পতাকা উত্তোলন করা যেতে পারে। জাতিসংঘের দুই পর্যবেক্ষক রাষ্ট্র ভ্যাটিক্যান ও ফিলিস্তিন- উভয়ের নামে খসড়া প্রস্তাবটি তৈরি করা হয়েছিল।

চলতি বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর পোপ ফ্রান্সিসের জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে গুরুত্বপূর্ণ ভাষণ দেয়ার কথা রয়েছে। ওই অধিবেশনে জাতিসংঘের ১৯৩টি সদস্য রাষ্ট্রের শীর্ষ প্রতিনিধিদের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। অধিবেশনের একমাস আগেই নিজেদের প্রস্তাবটি তুলতে চেয়েছিল ফিলিস্তিন। বর্তমানে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে শুধু সদস্য রাষ্ট্রগুলোর পতাকাই উড়তে পারে।

জাতিসংঘের কূটনীতিকরা জানিয়েছেন, রাষ্ট্র হিসেবে ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি না দেয়া যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইল নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে ফিলিস্তিনি পতাকা তোলার প্রচেষ্টায় বিরক্ত হতে পারে।  তারা জানিয়েছেন, পতাকা সংক্রান্ত এই প্রস্তাবটি বুধবারের মধ্যেই সব সদস্য রাষ্ট্রের হাতে তুলে দিতে চেয়েছিল ফিলিস্তিন। কিন্তু জাতিসংঘে নিযুক্ত ভ্যাটিক্যানের কূটনৈতিক মিশনের সম্মতি না নিয়েই তারা প্রস্তাবটি প্রস্তুত করেছিল।

জাতিসংঘের কিছু সদস্য রাষ্ট্রের কাছে বিতরণ করা একটি নোটিসে ভ্যাটিক্যান পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দিয়েছে, পতাকা নিয়ে ফিলিস্তিনি প্রস্তাবে তারা কোনো আপত্তি জানাবে না। কিন্তু এই উদ্যোগের সহপ্রস্তাবক হওয়ার কোনো পরিকল্পনাও তাদের নেই।

এ বিষয়ে জাতিসংঘে নিযুক্ত ফিলিস্তিনি মিশনের কাছে প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলেও তাত্ক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেনি তারা। অবশ্য চলতি বছরের প্রথমদিকে ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে ভ্যাটিক্যান।

 

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৭ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:২০
যোহর১২:০১
আসর৪:৩৩
মাগরিব৬:২৫
এশা৭:৪০
সূর্যোদয় - ৫:৩৮সূর্যাস্ত - ০৬:২০
পড়ুন