কিম জং ন্যাম হত্যা
সন্দেহভাজনদের মধ্যে উত্তর কোরীয় কূটনীতিক
রয়টার্স, বিবিসি২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭ ইং
সন্দেহভাজনদের মধ্যে উত্তর কোরীয় কূটনীতিক
উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উনের সত্ ভাই কিম জং ন্যামের হত্যায় মালয়েশিয়ায় উত্তর কোরীয় দূতাবাসের জ্যেষ্ঠ এক কর্মকর্তাকে শনাক্ত করেছে কুয়ালালামপুর। মালয়েশিয়ার পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় তারা ওই ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চান। এছাড়া উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় এয়ারলাইন্সের এক ব্যক্তিকেও এ ব্যাপারে সন্দেহ করা হচ্ছে।

মালয়েশিয়ার পুলিশ প্রধান খালিদ আবু বকর জানান, তারা যাদের সন্দেহ করছেন তারা এখনো মালয়েশিয়াতেই আছেন এবং তাদেরকে এরই মধ্যে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছে। উত্তর কোরিয়ার ওই কূটনীতিক দূতাবাসের দ্বিতীয় সচিব বলে জানিয়েছেন তিনি। তার নাম হিয়ন কেওয়াং সং। পুলিশ নিশ্চিত করেছেন যে, মালয়েশিয়ার বিমানবন্দরে কিম জং ন্যামকে তরল জাতীয় বিষাক্ত পদার্থ খাইয়ে হত্যা করা হয়েছে। আর এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন দুইজন নারী। তবে মালয়েশিয়ায় উত্তর কোরীয় দূতাবাসের পক্ষ থেকে এ অভিযোগ তীব্রভাবে প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। দূতাবাসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যে অভিযোগ ওই দুই নারীর বিরুদ্ধে আনা হয়েছে তা সঠিক নয়। বিবৃতিতে ওই দুই নারীকে নির্দোষ দাবি করে তাদের মুক্তি দেওয়ার আহবান জানানো হয়। এছাড়া সন্দেহভাজন আরো এক ব্যক্তিরও মুক্তি দাবি করা হয়। গত ১৩ ফেব্রুয়ারি কুয়ালালামপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ন্যাম খুন হন। খুনের আগে ম্যাকাওয়ের বিমান ধরার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি। হামলার দিন মালয়েশিয়া থেকে পালিয়ে যাওয়া চার সন্দেহভাজন উত্তর কোরিয়ার রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে চলে গেছেন, মালয়েশীয় পুলিশ এটি ‘দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস’ করে বলে জানিয়েছেন খালিদ।

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১ ইং
ফজর৫:১০
যোহর১২:১৩
আসর৪:২১
মাগরিব৬:০১
এশা৭:১৪
সূর্যোদয় - ৬:২৬সূর্যাস্ত - ০৫:৫৬
পড়ুন