অস্ট্রেলিয়ার দ্বৈত নাগরিক এমপিদের ব্যাপারে আদালতে শুনানি শুরু
১১ অক্টোবর, ২০১৭ ইং
g বিবিসি

অস্ট্রেলিয়ায় দ্বৈত নাগরিকত্ব থাকা সাতজন এমপি বহাল থাকবেন কিনা তা নিয়ে আদালতে শুনানি শুরু হয়েছে। সংবিধান অনুযায়ী দ্বৈত নাগরিকরা অস্ট্রেলিয়ায় রাজনীতি করতে পারবেন না। অস্ট্রেলিয়ার আদালত এখন দেখছেন যারা জানত না তারা দ্বৈত নাগরিক তাদের ব্যাপারে আইনের কোনো ব্যতিক্রম আছে কিনা।

যদি উপপ্রধানমন্ত্রী বার্নাবি জয়েসকে অযোগ্য ঘোষণা করা হয় তাহলে সরকার এক আসনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাতে পারে। সরকার শুধু দু’জন রাজনীতিবিদকে অযোগ্য ঘোষণার পক্ষে যুক্ত তুলে ধরবে। সরকার বলছে জয়েসসহ অন্য পাঁচ রাজনীতিবিদ জানত না যে তাদের দ্বৈত নাগরিকত্ব আছে। তাদের বহাল রাখতে হবে।

আদালতে তিনদিন শুনানি হবে। বৃহস্পতিবার রুল জারি করতে পারেন আদালত। আবার আদালত চাইলে বেশি সময় নিতে পারেন। সরকারি দলের নেতা জয়েস, ফিওনা নাস, ম্যাট কানাভানের দ্বৈত নাগরিকত্ব আছে। বিরোধীদলের নেতা ম্যালকম রবার্টস, নিক জেনোফোন, লারিস্যা ওয়াটারস এবং স্কট লুডলামের দ্বৈত নাগরিকত্ব রয়েছে।

এদের মধ্যে জয়েস প্রতিনিধি পরিষদে নির্বাচিত হয়েছেন অন্যরা সিনেটের নির্বাচিত সদস্য। জয়েস তার আসন হারালে টার্নবুল সরকার জটিলতার মধ্যে পড়তে পারে। গত জুলাইয়ে গ্রিন দলের নেতা লুডলাম তার নিউজিল্যান্ডের নাগরিকত্বের কথা প্রকাশ করার পর রাজনীতিবিদদের দ্বৈত নাগরিকত্ব নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় অনুসন্ধান ও আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়।

 

এই পাতার আরো খবর -
facebook-recent-activity
১১ অক্টোবর, ২০২১ ইং
ফজর৪:৩৯
যোহর১১:৪৬
আসর৩:৫৮
মাগরিব৫:৪০
এশা৬:৫১
সূর্যোদয় - ৫:৫৪সূর্যাস্ত - ০৫:৩৫
পড়ুন