খেলাধুলা | The Daily Ittefaq

দ্বিতীয় টেস্টে জিততে মরিয়া বাংলাদেশ

দ্বিতীয় টেস্টে জিততে মরিয়া বাংলাদেশ
স্পোর্টস রিপোর্টার১০ নভেম্বর, ২০১৮ ইং ০৯:৩২ মিঃ
দ্বিতীয় টেস্টে জিততে মরিয়া বাংলাদেশ
প্রথম টেস্টে জিম্বাবুয়ের উইকেট পতনের পর বাংলাদেশ দলের উল্লাস । ছবি: সংগৃহীত
ওয়ানডে সিরিজে হারলেও টেস্টে বাংলাদেশকে বড়সড় ধাক্কা দিয়েছে জিম্বাবুয়ে। প্রথম টেস্টে বাংলাদেশকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে সিরিজে এগিয়ে গিয়েছে সফরকারীরা। অন্যদিকে সিলেটে হেরে দারুণ চাপে বাংলাদেশ। জিম্বাবুয়ের কাছে ১৫১ রানের হারে দেশজুড়ে ব্যাপক সমালোচনার তোপে পড়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। বিশেষ করে ব্যাটসম্যানদের দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যাটিংয়ে হতাশা বেড়েছে।
 
সিরিজে ১-০ তে পিছিয়ে পড়া বাংলাদেশের সামনে জয়ের বিকল্প নেই দ্বিতীয় টেস্টে। সিরিজ হারের চোখ রাঙানি এখন স্বাগতিকদের সামনে। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে আগামীকাল শুরু হবে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট। ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে সিরিজ হার এড়াতে মিরপুরে জিততেই হবে বাংলাদেশকে।
 
জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরিফুল হক বলেছেন, দ্বিতীয় টেস্টে জিততে মরিয়া বাংলাদেশ দল। বোলিংয়ে মুস্তাফিজুর রহমান ফিরবেন বলে জয় পেতে আশাবাদী তিনি। সিরিজে সমতা ফেরাতে দলগত পারফরম্যান্সের দিকেই তাকিয়ে আরিফুল।
 
সিলেট থেকে ফিরে গতকাল গোটা দল একসঙ্গে অনুশীলন করেছে। মিরপুর স্টেডিয়ামে দুপুরের পর শুরু করে বিকেল চারটা পর্যন্ত অনুশীলন করেছেন ক্রিকেটাররা।
 
প্রথম টেস্টে হারের পর দলের পরিবেশ জানতে চাইলে গতকাল আরিফুল বলেন, ‘আমাদের মূল বোলার মুস্তাফিজ খেলেননি। মুস্তাফিজ ফিরলে আমরা ম্যাচ জিততে পারব, কোনো সমস্যা হবে না। আমরা ইতিবাচক আছি, আমাদের জন্য ডু ওর ডাই ম্যাচ, আমরা ম্যাচ জিতব যেভাবেই হোক।’
 
মিরপুরে ঘুরে দাঁড়াতে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ দল। প্রথম টেস্টের হার ভুলে ব্যাটে-বলে নিজেদের সেরাটা খেলতে চায় স্বাগতিকরা। দল হিসেবে খেলতে পারলে ম্যাচ জেতা কঠিন হবে না বলে মনে করেন আরিফুল। গতকাল তিনি বলেছেন, ‘আমরা যদি শেষ ম্যাচ নিয়ে চিন্তা করি তাহলে মোরালি অনেক ডাউন থাকব। আমরা ওইটা নিয়ে চিন্তা করব না। আমরা ম্যাচ, বল টু বল নিয়ে ফোকাস করব। আমার মনে সবাই একত্র হয়ে খেলতে পারলে আমাদের জন্য ম্যাচ জেতা কঠিন হবে না।’
 
সিলেট টেস্টে বাংলাদেশ দল হিসেবে খারাপ করলেও অভিষিক্ত আরিফুল ব্যাট হাতে ভালোই করেছিলেন। ২৫ বছর বয়সী এই পেস বোলিং অলরাউন্ডার প্রথম ইনিংসে অপরাজিত ৪১ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৮ রান করেছেন। এই পারফরম্যান্স অনেক আত্মবিশ্বাস যুগিয়েছে আরিফুলকে।
 
গতকাল তিনি বলেছেন, ‘প্রথম টেস্ট যেহেতু, ভালোই গিয়েছে। আমার আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বোলাররা সহজে বাজে বল দিবে না। আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে। আসলে শেষ টেস্টটা খেলে আমার চিন্তা ভাবনায় পরিবর্তন এসেছে।’
 
টেস্ট দলে আসার আগে জাতীয় লিগের ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন আরিফুল। শুরুতে সীমিত ওভারের ক্রিকেটের জন্য বিবেচনা করা হতো রংপুরের এই ক্রিকেটারকে। তবে সব ফরম্যাটেই খেলার ইচ্ছা রয়েছে তার। গতকাল বলেছেন, ‘আমার আসলে স্বপ্ন ছিল টেস্ট খেলার। আমি চাই দীর্ঘ সময় টেস্ট দলে বা জাতীয় দলে থাকতে। আমার সব ফরম্যাটে খেলার ইচ্ছা। আমার ইচ্ছা থাকে যেই ফরম্যাটে যেভাবে খেলা দরকার সেভাবেই খেলার চেষ্টা করি।’
 
লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের নিয়ে ব্যাটিংটা উপভোগ করেন আরিফুল। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান বলেছেন, ‘আমি বিসিএল, এনসিএলে লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের সঙ্গেই বেশিরভাগ সময় ব্যাট করে থাকি। ওই সময় প্ল্যানটা একটু অন্যরকম থাকে। আপনাকে হয়তো চারটি বল খেলতে হবে, দুই-একটা বল আরেকজনকে দিতে হবে। আপনি টেলএন্ডারের কাছ থেকে ওইভাবে কিছু আশা করতে পারেন না।’
 
ইত্তেফাক/এএম
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২০ ইং
ফজর৫:১৩
যোহর১২:১৩
আসর৪:২০
মাগরিব৫:৫৯
এশা৭:১২
সূর্যোদয় - ৬:২৯সূর্যাস্ত - ০৫:৫৪