অর্থনীতি | The Daily Ittefaq

ছয় বছরে রাজস্ব আয়ের গড় প্রবৃদ্ধি ১৫ দশমিক ১৫ শতাংশ

ছয় বছরে রাজস্ব আয়ের গড় প্রবৃদ্ধি ১৫ দশমিক ১৫ শতাংশ
অনলাইন ডেস্ক২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং ১৫:৫৪ মিঃ
ছয় বছরে রাজস্ব আয়ের গড় প্রবৃদ্ধি ১৫ দশমিক ১৫ শতাংশ
বিদেশি ঋণ নির্ভরতা কমিয়ে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বা রাজস্ব আয় বাড়ানোর যে পরিকল্পনা সরকারের ছিল গত কয়েক বছরে তা অনেকাংশে সফল হয়েছে। পদ্মা সেতুর মত মেগা প্রকল্প এখন নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়ন হচ্ছে।প্রতিবছর বাজেটের আকার বাড়ছে-এর মূলে রয়েছে রাজস্ব আয়ের বড় উলম্ফন।
 
গত ছয় বছর জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) রাজস্ব আয় গড়ে ১৫ দশমিক ১৫ শতাংশ হারে বেড়েছে।২০১২-১৩ অর্থবছরে রাজস্ব আয়ের পরিমাণ ছিল এক লাখ ৯ হাজার ১৫১ কোটি ৭৩ লাখ টাকা। বিগত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে এই আয় বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ৬ হাজার কোটি টাকা।
 
করমেলাসহ এনবিআরের নানামূখী উদ্ভাবনী উদ্যোগ কর আহরণের সাফল্যের পেছনে চাবিকাঠি হিসেবে কাজ করেছে বলে মনে করছে কর প্রশাসন।এই সময়ে রাজস্ব আয় বাড়ার পাশাপাশি করদাতার সংখ্যাও বেড়েছে উল্লেখযোগ্যহারে। বর্তমানে ইলেকট্রনিক কর সনাক্তকরণ নম্বরধারীর (ই-টিআইএন) সংখ্যা ৩৬ লাখের ওপরে।
 
এ বিষয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান মো. মোশাররফ হোসেন ভূইয়া বলেন, ‘গত কয়েকবছরে অটোমেশন কার্যক্রম এগিয়ে নেওয়া, আয়কর মেলার আয়োজন, ট্যাক্স ও ভ্যাট কার্ড প্রদান, কর বাহাদুর পরিবারকে সম্মানা জানানোসহ এনবিআরের নানামূখী উদ্ভাবনী উদ্যোগ দেশে রাজস্ববান্ধব সংস্কৃতি তৈরি করতে পেরেছে। যার ফলে করদাতার সংখ্যা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রাজস্ব আয়ে ধারাবাহিক সাফল্য এসেছে।’
 
তিনি বলেন, আগে জনগণের মধ্যে করভীতি ছিল। বর্তমান সরকার জনসচেতনতা তৈরির মাধ্যমে সেই ভীতি কাটাতে পেরেছে। মানুষ এখন কর দিতে চাই।কর প্রশাসনকে জনবান্ধব করা হয়েছে।এর ফল হিসেবে রাজস্ব আয় ও করদাতার সংখ্যা নিয়মিত বাড়ছে।
 
এনবিআর চেয়ারম্যানের মতে সরকারের ব্যবসাবান্ধব নীতি-সহায়তা ও অবকাঠামো উন্নতির ফলে বেসরকারিখাতে ব্যবসা-বাণিজ্য উল্লেখযোগ্যভাবে সম্প্রসারিত হয়েছে। যার ফলশ্রুতিতে মূল্য সংযোজন কর (মূসক) ও আমদানি-রফতানি শুল্ক থেকে আয় যথেষ্ট বেড়েছে।
 
তিনি বলেন, বিগত কয়েক বছর করদাতাদের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের মাধ্যমে মাঠ পর্যায়ে হয়রানি বন্ধ করা গেছে। পাশাপাশি তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার করে ঘরে ঘরে করসেবা পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। কর সংশ্লিষ্ট আইনগুলো যথেষ্ট সহজ করা হয়েছে। যা রাজস্ব আহরণে ইতিবাচক ফল এনে দিয়েছে। বাসস
 
ইত্তেফাক/কেকে
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
১২ জুলাই, ২০২০ ইং
ফজর৩:৫২
যোহর১২:০৪
আসর৪:৪৪
মাগরিব৬:৫২
এশা৮:১৫
সূর্যোদয় - ৫:১৯সূর্যাস্ত - ০৬:৪৭