অর্থনীতি | The Daily Ittefaq

স্বল্পসুদে সরকারি চাকরিজীবীদের গৃহঋণ দিতে ৫ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি

স্বল্পসুদে সরকারি চাকরিজীবীদের গৃহঋণ দিতে ৫ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি
ইত্তেফাক রিপোর্ট২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং ১৮:১৩ মিঃ
স্বল্পসুদে সরকারি চাকরিজীবীদের গৃহঋণ দিতে ৫ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি
ফাইল ছবি
স্বল্প সুদে সরকারি চাকরিজীবীদের গৃহঋণ দিতে রাষ্ট্রায়ত্ত চার বাণিজ্যিক ব্যাংক ও বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স করপোরেশনের (বিএইচবিএফসি) সঙ্গে সরকারের চুক্তি হয়েছে। 
 
মঙ্গলবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলনকক্ষে অর্থ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব জাফর উদ্দিন এবং বাস্তবায়নকারী পাঁচ প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সমঝোতা স্মারকে সই করেন। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলামসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। 
 
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, আগামী ১ অক্টোবর থেকে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন সরকারি চাকরিজীবীরা। মাত্র ৫ শতাংশ সরল সুদে তারা সর্বনিম্ন ২০ লাখ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ৭৫ লাখ টাকা পর্যন্ত গৃহনির্মাণ ঋণ নিতে পারবেন। রাষ্ট্রায়ত্ত চার বাণিজ্যিক ব্যাংক সোনালী, জনতা, অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংক এবং বাংলাদেশ হাউস বিল্ডিং ফাইনান্স করপোরেশন (বিএইচবিএফসি) থেকে এই ঋণ নেওয়া যাবে।
 
চাকরি স্থায়ী হওয়ার পাঁচ বছর পর থেকে সরকারি চাকরিজীবীরা এই ঋণ পাওয়ার যোগ্য হবেন। আর আবেদনের জন্য সর্বোচ্চ বয়সসীমা হবে ৫৬ বছর। ঋণ পরিশোধের জন্য সর্বোচ্চ সময় হবে ২০ বছর। এ ঋণের জন্য ব্যাংক গড়ে ১০ শতাংশ হারে সুদ নেবে, তবে ঋণগ্রহীতাকে দিতে হবে ৫ শতাংশ। বাকিটা সরকারের পক্ষ থেকে পরিশোধ করা হবে।
 
অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, এখন আবাসনে জোর দেওয়া হচ্ছে। এখন দেশে ৬০ শতাংশের আবাসন আছে বাকিরা ঝুপড়ি-টুপরিতে থাকে। তবে আবাসনে সর্বব্যাপী উন্নয়ন হয়েছে, শহরের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। সারাদেশে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছে। 
 
অর্থ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার বলেন, সবাইকে একসঙ্গে আনা যাবে না, ফেইজ বাই ফেইজ হবে, দুই বছরের মধ্যে হবে। মন্ত্রণালয়গুলো অটোমেশন প্রক্রিয়ার মধ্যে আসলে খুব দ্রুত হবে।
 
নীতিমালায় বলা হয়েছে, বাড়ি (আবাসিক) নির্মাণের জন্য একক ঋণ, জমি ক্রয়সহ বাড়ি (আবাসিক) নির্মাণের জন্য গ্রুপ ভিত্তিক ঋণ, জমিসহ তৈরি বাড়ি কেনার জন্য একক ঋণ এবং ফ্ল্যাট কেনার জন্য ঋণ এই গৃহ নির্মাণ ঋণের আওতায় আসবে। সরকারি চাকরিতে স্থায়ীভাবে নিয়োগপ্রাপ্তরাই কেবল এ ঋণের আবেদন করতে পারবেন। 
 
ইত্তেফাক/এমআই
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২৬ মে, ২০২০ ইং
ফজর৩:৪৭
যোহর১১:৫৬
আসর৪:৩৫
মাগরিব৬:৪১
এশা৮:০৪
সূর্যোদয় - ৫:১৩সূর্যাস্ত - ০৬:৩৬