অর্থনীতি | The Daily Ittefaq

চার মাসে রফতানি আয় বেড়েছে ১৮.৬৫ শতাংশ

চার মাসে রফতানি আয় বেড়েছে ১৮.৬৫ শতাংশ
অনলাইন ডেস্ক০৬ নভেম্বর, ২০১৮ ইং ১৯:১৮ মিঃ
চার মাসে রফতানি আয় বেড়েছে ১৮.৬৫ শতাংশ
চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম চার মাসে (জুলাই-অক্টোবর) রফতানি আয় ও লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় প্রবৃদ্ধি দুই-ই বেড়েছে। আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় রফতানি আয় ১৮ দশমিক ৬৫ শতাংশ বেশি হয়েছে। এ সময় রফতানি আয় ছিল এক হাজার ৩শ’ ৬৫ কোটি ১৭ লাখ মার্কিন ডলার। যা লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় ১২ দশমিক ৫৭ শতাংশ বেশি।
 
অন্যদিকে, একক মাস হিসেবে সর্বশেষ অক্টোবর মাসে রফতানি আয় আগের বছরের একই মাসের তুলনায় ৩০ দশমিক ৫৩ শতাংশ বেড়েছে।
 
রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, চলতি অর্থবছরের প্রথম চার মাসে রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল এক হাজার ২শ’ ১২ কোটি ৭ লাখ ডলার। এর বিপরীতে আয় হয়েছে এক হাজার ৩শ’ ৬৫ কোটি ১৭ লাখ মার্কিন ডলার। এছাড়া গতবছরের একই সময় আয় হয়েছিল এক হাজার ১শ’ ৫০ কোটি ৫৮ লাখ মার্কিন ডলার।
 
অন্যদিকে, অক্টোবর মাসে রফতানি আয় হয়েছে ৩শ’ ৭১ কোটি ১৮ লাখ ডলার। লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২শ’৭৯ কোটি ডলার। লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় আয় বেড়েছে ৩২ দশমিক ৬৮ শতাংশ। গত বছর অক্টোবর মাসে আয়ের পরিমাণ ছিল ২শ’ ৮৪ কোটি ৩০ লাখ ডলার।
 
প্রধান রফতানি পণ্য পোশাক খাতের আয় ধারাবাহিকভাবে ভালো করার পাশাপাশি রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার জন্য রফতানি আয় ক্রমান্বয়ে বাড়ছে বলে বিশ্লেষকরা মনে করেন।
 
এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ অর্থনীতি সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. জামালউদ্দিন আহমেদ বলেন, বাংলাদেশের রফতানি খাত মূলত পোশাক নির্ভর। রফতানিতে পোশাক খাতের অবদান দিন দিন বাড়ছে। এর পাশাপাশি রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ক্রমান্বয়ে রফতানি আয় বৃদ্ধির ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
 
তিনি রফতানি আয় আরো বাড়াতে প্রচলিত বাজার ছাড়াও নতুন নতুন বাজারের সম্ভাবনা কাজে লাগানো এবং পোশাকের পাশাপাশি পণ্য বহুমূখীকরণ বিশেষ করে বেশি মূল্য সংযোজন হয় এমন পণ্য রফতানির প্রতি মনোযোগ দেওয়ার ও পরামর্শ দেন তিনি।
 
ইপিবির হালনাগাদ প্রতিবেদন অনুযায়ী, পোশাক খাতের নিট পণ্য (সোয়েটার, টি-শার্ট জাতীয় পোশাক) রফতানি আয় ও প্রবৃদ্ধি লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় দুই-ই বেড়েছে। ৫শ’ ২কোটি ১৮ লাখ ডলারের লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে রফতানি আয় দাঁড়িয়েছে ৫শ’ ৮৭ কোটি ৫২ লাখ ডলার। প্রবৃদ্ধি হয়েছে ১৭ দশমিক ৮৩ শতাংশ। লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় ১৬ দশমিক ৯৯ শতাংশ বেশি রফতানি আয় হয়েছে।
 
গতবছরের প্রথম ১১ মাসে নিট পণ্যের রফতানি আয় ছিল ৪শ’ ৯৮ কোটি ৬২ লাখ ডলার। বাসস
 
ইত্তেফাক/কেকে
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
২১ আগষ্ট, ২০১৯ ইং
ফজর৪:১৭
যোহর১২:০২
আসর৪:৩৬
মাগরিব৬:৩০
এশা৭:৪৬
সূর্যোদয় - ৫:৩৬সূর্যাস্ত - ০৬:২৫