বিশ্ব সংবাদ | The Daily Ittefaq

রাজতান্ত্রিক নেতৃত্বে ঝাঁকুনি দিতে সৌদি ফিরলেন বাদশার ভাই!

রাজতান্ত্রিক নেতৃত্বে ঝাঁকুনি দিতে সৌদি ফিরলেন বাদশার ভাই!
অনলাইন ডেস্ক৩১ অক্টোবর, ২০১৮ ইং ২০:১৮ মিঃ
রাজতান্ত্রিক নেতৃত্বে ঝাঁকুনি দিতে সৌদি ফিরলেন বাদশার ভাই!
ব্রিটেনে স্বেচ্ছা-নির্বাসনে ছিলেন প্রিন্স আহমাদ বিন আবদুল আজিজ। ছবি: আলজাজিরা
সৌদি বাদশা সালমান বিন আবদুল আজিজের বেঁচে থাকা একমাত্র আপন ভাই প্রিন্স আহমাদ বিন আবদুল আজিজ স্বদেশে ফিরেছেন। তিনি ব্রিটেনে স্বেচ্ছা-নির্বাসনে ছিলেন। সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ড নিয়ে যখন সারা বিশ্বে তোলপাড় চলছে ঠিক তখন প্রিন্স আহমাদ নিজ দেশে ফিরলেন।
 
তার প্রত্যাবর্তন সম্পর্কে সৌদি কর্তৃপক্ষ সরকারিভাবে কিছু জানায়নি। তবে আহমাদের ঘনিষ্ঠ তিনটি সূত্রের বরাত দিয়ে নিউ ইয়র্ক টাইমস জানায়, মঙ্গলবার সৌদি আরবের রিয়াদে ফেরেন প্রিন্স আহমাদ।  
 
ধারণা করা হচ্ছে, প্রিন্স আহমাদের ফেরার উদ্দেশ্য হচ্ছে তিনি সৌদির রাজতান্ত্রিক নেতৃত্বে ঝাঁকুনি দিতে চান। তবে, কী শর্তে প্রিন্স আহমাদ ফিরেছেন তা স্পষ্ট নয়। 
 
রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের অনেকে বলছেন, প্রিন্স আহমাদের প্রত্যাবর্তন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ অনেকে মনে করেন প্রিন্স আহমাদ বর্তমান যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানের জায়গা দখল নিতে পারেন। কারণ জামাল খাশোগি হত্যার ঘটনায় চাপের মুখে রয়েছেন যুবরাজ বিন সালমান।
 
ওয়াশিংটন পোস্ট পত্রিকার কলাম লেখক ও স্বেচ্ছা-নির্বাসিত সৌদি আরবের ভিন্ন মতাবলম্বীর সাংবাদিক ছিলেন জামাল খাশোগি। তুর্কি বান্ধবীর সঙ্গে বিয়ের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আনতে গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করার পর নিখোঁজ হন তিনি। 
 
শুরু থেকেই তুরস্ক দাবি করেছিল খাশোগি নিখোঁজ হওয়ার দিন সৌদি গোয়েন্দাদের ১৫ সদস্যের একটি দল রিয়াদ থেকে ইস্তাম্বুল যায়। কনস্যুলেটের ভেতরে ঢুকে তারাই খাশোগিকে খুন করে। এরপর তার দেহ খণ্ডবিখণ্ড করা হয়। খবর: আলজাজিরা, পার্সটুডে
 
ইত্তেফাক/জেডএইচ
এই পাতার আরো খবর -
সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
facebook-recent-activity
৮ নভেম্বর, ২০১৯ ইং
ফজর৫:০৭
যোহর১১:৫১
আসর৩:৩৬
মাগরিব৫:১৫
এশা৬:৩৩
সূর্যোদয় - ৬:২৭সূর্যাস্ত - ০৫:১০